তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেচেপ তাইয়িপ এর্দোয়ান
তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেচেপ তাইয়িপ এর্দোয়ান

বিশ্ব মুসলিম ব্যক্তিত্ব খেতাব পেলেন এরদোগান

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানকে চলতি বছরের ‘বিশ্ব মুসলিম ব্যক্তিত্ব’ বলে ঘোষণা করেছে নাইজেরিয়ার একটি ইসলামপন্থী দৈনিক।

এতে বিশ্বজুড়ে নিপীড়িত মুসলমানদের অধিকারের পক্ষে কাজ করায় পত্রিকাটির প্রশংসা কুড়িয়েছেন এরদোগান।

নাইজেরিয়া মুসলিম নিউজ নামের দৈনিকটির প্রকাশক রাশেদ আবু বাকার বলেন, এরদোগানকে ‘বিশ্ব মুসলিম ব্যক্তিত্ব’ হিসেবে বেছে নেয়া হয়েছে। এ ক্ষেত্রে তিনি যে প্রভাব বিস্তার করেছেন, তা নিয়ে কোনো বিতর্ক নেই।

নাইজেরিয়ার মুসলমানদের মধ্যে বিপুলসংখ্যক এরদোগান সমর্থক রয়েছেন।

তিনি বলেন, বিশ্বে যেখানে মুসলমানদের কণ্ঠ রুদ্ধ ও প্রতিরোধহীন করে দেয়া হয়েছে, সেখানে এরদোগান নিজের কণ্ঠ আরও উচ্চকিত করে তাদের নেতায় পরিণত হয়েছেন। যদিও তার বিরুদ্ধে নানা নোংরা প্রচার হয়েছে।

এ পত্রিকার প্রকাশক বলেন, যেখানে ইসরাইলি সেনাদের হাতে ফিলিস্তিনিদের হত্যাকাণ্ড নিয়ে মুসলিম বিশ্ব নীরব রয়েছে, এরদোগান সেখানে তাদের পক্ষে কথা বলেছেন ও পদক্ষেপ নিয়েছেন।

এ ছাড়া মিয়ানমারে রোহিঙ্গা ও চীনের উইঘুর মুসলমানদের রক্ষায় তার ভূমিকা ছিল উল্লেখযোগ্য বলে জানান তিনি।

কেবল কথা বলেই তিনি নিজের দায়িত্ব সারেননি, তাদের মানবিক সাহায্যে এগিয়ে গেছেন এরদোগান।

প্রভাবশালী মুসলমানদের মধ্যে এরদোগানের পর রয়েছেন শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি, মাহাথির মোহাম্মদ, শেখ ইউসুফ আল কারজাভী ও সৌদি সিংহাসনের উত্তরসূরি মোহাম্মদ বিন সালমান।

আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ও মুসলিম বিশ্বে তার প্রভাব অনস্বীকার্য বলে জানান আবু বাকার।