Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ২:০০ ঢাকা, বুধবার  ২১শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে বাংলাদেশ।

শীর্ষ মিডিয়া ৩০ অক্টোবর ঃ   বিশ্বে জলবায়ু পরিবর্তনের সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে রয়েছে বাংলাদেশ। র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের পরে অর্থাৎ, যথাক্রমে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে রয়েছে সিয়েরা লিওন ও দক্ষিণ সুদান।

বৃটেনভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ম্যাপলক্রফটের প্রকাশিত র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে অবস্থান করছে বাংলাদেশ। ১৯৬টি দেশে জলবায়ু পরিবর্তনের সম্ভাব্য হুমকি বিষয়ে জরিপ চালায় প্রতিষ্ঠানটি। এর মধ্যে মারাত্মক হুমকিতে রয়েছে ৩২টি দেশ। ইমেইলে দেয়া একটি বিবৃতিতে বার্তা সংস্থা ব্লুমবার্গকে এ তথ্য দিয়েছে ম্যাপলক্রফট।

ভারত, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানও জলবায়ু পরিবর্তনের মারাত্মক ঝুঁকিতে রয়েছে। গুয়াতেমালাও রয়েছে সে তালিকায়। বিশ্বে জলবায়ু পরিবর্তনের মারাত্মক ঝুঁকির শীর্ষে অবস্থান করছে এ দেশগুলো। আর সে কারণে এ দেশগুলোতে ঘরোয়া সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকিও রয়েছে।

এদিকে জলবায়ু পরিবর্তনের সঙ্গে খাদ্য নিরাপত্তাহীনতা বা সংকটের হুমকিকে বহুগুণে বাড়িয়ে দেয়ার ভূমিকা পালন করে, যা ঘরোয়া সহিংসতা সৃষ্টির ঝুঁকিকে বাড়িয়ে দেয়।

সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে থাকা প্রথম ১০টি দেশের বাকি ৭টি হচ্ছে- নাইজেরিয়া, চাদ, হাইতি, ইথিওপিয়া, ফিলিপাইন, সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক, এরিট্রিয়া। যে দেশগুলো জলবায়ু পরিবর্তনের হুমকিতে রয়েছে, সে দেশগুলোর অর্থনীতি অনেকাংশে কৃষির ওপর নির্ভরশীল। অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে কৃষির মুখ্য ভূমিকা রয়েছে।

ম্যাপলক্রফটের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, কৃষি থেকে প্রতি বছর ২৮ শতাংশ রাজস্ব অর্জিত হয় এবং ৬৮ শতাংশ মানুষ কৃষিকাজ করে জীবিকা নির্বাহ করছেন। ম্যাপলক্রফটের দেয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দক্ষিণ সুদান, সিয়েরা লিওন, চাদ ইথিওপিয়া, হাইতি, সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক, এরিট্রিয়া, গণপ্রজানতন্ত্রী কঙ্গো, সুদান, বুরুন্ডি ও আফগানিস্তান- এই ১১টি রাষ্ট্র একই সঙ্গে জলবায়ু পরিবর্তন ও খাদ্য নিরাপত্তাহীনতার ভয়াবহ ঝুঁকিতে রয়েছে।