Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১০:৩০ ঢাকা, মঙ্গলবার  ১৩ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ
শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ

‘বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশৃঙ্খলার ব্যাপারে সচেতন ছিলেন না কর্তৃপক্ষ’

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, শিক্ষার্থীদের সঠিকভাবে পরিচালনায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উপাচার্য, শিক্ষক ও ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্যদের অগ্রণী ভূমিকা নিতে হবে।

তিনি বলেন, এজন্য অভিভাবকদেরকে সম্পৃক্ত করে সকলকে একসাথে কাজ করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যদের এক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিতে হবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষার্থীদের সঠিকভাবে পরিচালনার জন্য প্রত্যেক বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে আরো সচেতন হবে। যেকোন ধরনের নেতিবাচক কর্মকান্ডে শিক্ষার্থীরা যাতে সম্পৃক্ত হতে না পারে, সে ব্যাপারেও শিক্ষকদের সজাগ থাকতে হবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, যখন স্কুল-কলেজের ছেলেমেয়েরা তাদের ন্যায্য দাবি পূরণ হওয়ায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফিরে গেছে, তখন কিছু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করা হয়েছে। স্বার্থান্বেষী মহল উদ্দেশ্যমূলকভাবে ফায়দা হাসিলের চেষ্টা করেছে। তিনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এব্যাপারে সচেতন ছিলেন না। এসব শিক্ষার্থীদের ব্যাপারে আমরা উদ্বিগ্ন’।

নুরুল ইসলাম নাহিদ আজ বুধবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সাথে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন যৌথভাবে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে।

নাহিদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের ৯টি দাবিই মেনে নিয়েছেন। কিছু দাবি ইতোমধ্যে পূরণ হয়েছে। কিছু বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। তিনি বলেন, ‘নতুন প্রজন্মকে আধুনিক যুগের উপযোগী দক্ষতা দিতে চাই। তাদেরকে ভাল শিক্ষা দিয়ে ভাল মানুষ তৈরি করতে চাই।’

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাকারীদের উদ্যোক্তা হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এখানে ব্যবসার কোন সুযোগ নেই। দেশের কল্যাণে জাতি গঠনে তারা কাজ করছেন। আপনারা উচ্চ শিক্ষার সুযোগ করে দিচ্ছেন। সরকার এজন্যই এতগুলো বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের অনুমতি দিয়েছে। কিন্তু সবারই জবাবদিহিতা রয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে ভাল পথে রাখার দায়িত্ব শিক্ষকদের। শিক্ষার্থীদের সঠিক পথে রাখার দায়িত্ব তারা পালন করবেন। কারো উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য ব্যবহৃত না হওয়ার জন্য তিনি শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানান।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নানের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমিতির সভাপতি শেখ কবির হোসেন এবং সেক্রেটারি জেনারেল বেনজির আহমদ।

সভায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যগণ তাদের মতামত, পরামর্শ ও সুপারিশ তুলে ধরেন।