Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৮:০৮ ঢাকা, বুধবার  ১৪ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা দিল ছাত্রলীগ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে নিজেদের কর্মী নিহত হওয়ার প্রতিবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা লাগিয়ে দিয়েছে ছাত্রলীগের একটি গ্রুপ।

সোমবার দুপুর ১২টার দিকে শাটল ট্রেনের বগি ভিত্তিক গ্রুপ ‘সিএফপি’ গ্রুপের ছাত্রলীগ কর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে তালা দিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকে। তারা নিহত তাপস পালকে নিজেদের কর্মী দাবি করে হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবিতে এ বিক্ষোভ করে।

এসময় সেখানে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন থাকলেও তারা নিরাপদ দূরত্বে অবস্থান নেয়। এর ফলে চবিতে কেউ প্রবেশ করতেও পারছেন না আবার বের হতেও পারছে না। বিক্ষোভে চবি ছাত্রলীগের শাটল ট্রেনের বগি ভিত্তিক ‘সিএফসি’ গ্রুপের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বিলুপ্ত কমিটির সহ-সভাপতি অমিত কুমার বুস।

তারা এ হত্যকাণ্ডের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তথা উপচার্যকে দায়ী করেছেন। উপচার্যের মদদপুষ্ট ছাত্রলীগ কর্মীদের হাতেই এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে দাবি করে এখানে তার ইন্ধনেরও অভিযোগ করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চবি প্রক্টর সিরাজ উদ দৌল্লাহ বলেন, ‘ছাত্রলীগের একটি পক্ষ তাপস হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে প্রধান ফটকে তালা দিয়েছে বলে শুনেছি। সেখানে পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়ন রয়েছে।’

উল্লেখ্য, রোববার সকালে শাহজালাল হলের সামনে ছাত্রলীগের বিলুপ্ত কমিটির বগি ভিত্তিক দুই গ্রুপ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে তাপস পাল নামে নিজ দলের এক কর্মীকে গুলি করে মেরেছে ছাত্রলীগের অপর গ্রুপ। চবি শাটল ট্রেনের বগি ভিত্তিক গ্রুপ ‘ভিএক্স’ ও ‘সিএফপি’ গ্রুপের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে ছাত্রলীগের ২৬ নেতাকর্মীকে আটক করেছে। ছাত্রলীগ নিয়ন্ত্রিত শাহ জালাল হল থেকে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্রসহ মওদুদীর লেখা জিহাদী বইও উদ্ধার করেছে। অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় ৬৫ ছাত্রলীগ কর্মীর বিরুদ্ধে একটি মামলা করেছে পুলিশ। তবে হত্যার ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি।