ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৮:৫৩ ঢাকা, শুক্রবার  ২০শে জুলাই ২০১৮ ইং

বিশ্বকাপকে দুর্নীতি মুক্ত রাখতে চুক্তি করেছে আইসিসি

আগামী ক্রিকেট বিশ্বকাপকে দুর্নীতি মুক্ত রাখাতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে চুক্তি করেছে। ম্যাচ ফিক্সিংসহ অন্যান্য দুর্নীতি রোধে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সঙ্গে আলাপ আলোচনাও ইতোমধ্যে সেড়ে ফেলেছে ক্রিকেটের বিশ্ব নির্বাহী সংস্থাটি। এ ব্যাপারে সংস্থাটির সিইও ডেভিড রিচার্ডসন বলেন, ‘বর্তমান যুগে যেকোন খেলায় দুর্নীতি সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। তবে এটির বিরুদ্ধে লড়াই করতে হবে। আর বিশ্বকাপের মত বড় আসরে যাতে এর কোন প্রভাব না পড়ে সেদিকেই আমাদের প্রথম নজর।’
‘ভদ্রলোকের খেলা ক্রিকেট’-এই কথাটিকে দূষিত করতে সর্বদাই ওত পেতে থাকে জুয়াড়িরা। এখন পর্যন্ত বেশ কয়েকবার ম্যাচ ফিক্সিং করে ক্রিকেটের মধ্যে বিষ ছড়িয়েছে জুয়াড়িরা। তাতে ক্রিকেটের যথেষ্ট ক্ষতি হয়েছে।
যেহেতুন সর্বদাই ওত পেতে থাকে জুয়াড়িরা। তাই আগামী বিশ্বকাপেও জুয়াড়িদের ভেল্কি দেখা যেতে পারে। এমন শংকা থেকে আগেভাগেই কঠোর হয়ে যাচ্ছে আইসিসি। জুয়াড়িদের দুর্নীতি ঠেকাতে আগেভাগেই বিভিন্ন পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে আইসিসি।
রিচার্ডসন বলেন, ‘এই প্রথমবারের মত আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে আমরা চুক্তি করেছি। যাতে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের আগামী বিশ্বকাপকে দুর্নীতি মুক্ত রাখা যায়।’
নিজস্ব দুর্নীতি বিরোধি দল থাকার পর অন্যের সহায়তা নিল আইসিসি। কিন্তু কেন? এ ব্যাপারে রিচার্ডস বলেন, ‘শুধুমাত্র আমাদের নিজস্ব দুর্নীতি বিরোধি দল নিয়ে হবে না। কারণ এটি অনেক বড় আসর। তাতে সবার সহযোগিতা প্রয়োজন রয়েছে। এছাড়াও অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের ফেডারেল পুলিশের সহযোগিতাও চেয়েছি আমরা। ক্রিকেট ভক্তদের আমি এটা নিশ্চিত করতে চাই, আগামী বিশ্বকাপ দুর্নীতি ও স্পট ফিক্সিং মুক্ত রাখা হবে।’
আগামী বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে বিশ্বকাপ ক্রিকেটের এগারতম আসর। উদ্বোধনী দিনে দুটি খেলা রয়েছে। ক্রাইচার্চে মুখোমুখি হবে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলংকা। আর মেলবোর্নে লড়বে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড।

Like & share করে অন্যকে দেখার সুযোগ দিন