ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৯:০৪ ঢাকা, শনিবার  ১৭ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

বিমাবন্দরে পেটের ভেতর লুকিয়ে রাখা স্বর্ণের বার উদ্ধার, আটক ১

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমাবন্দরে মালয়েশিয়া থেকে ঢাকায় আসা এক যাত্রীর পেটের ভেতর অভিনব কায়দায় লুকিয়ে রাখা ১২টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর কর্তৃপক্ষ।

আটককৃত ওই যাত্রীর নাম শরীফ আহমেদ। তিনি কুমিল্লা জেলার ময়নামতি থানার বুড়িচং গ্রামের বাসিন্দা। বাংলাদেশী টাকায় জব্দ করা সোনার বাজার মূল্য প্রায় ৬০ লাখ টাকা।

বুধবার দিবাগত রাত পৌনে ১টার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমাবন্দরের গ্রীন চ্যানেল এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) ড. মঈনুল খান স্বর্ণেরবার আটকের খবর নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বুধবার দিবাগত রাত সোয়া ১২টার দিকে মালিন্দ এয়ারলাইন্স (ওডি-১৬২) নম্বরের ফ্লাইটটি মালয়েশিয়া থেকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমাবন্দরে অবতরণ করে। ওই বিমানের যাত্রী শরীফ রাত পৌনে ১টার দিকে বিমাবন্দরে নেমে মালামাল নিয়ে তড়িঘড়ি করে গ্রীন চ্যানেল এলাকা দিয়ে বের হচ্ছিলেন। এসময় শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা তাকে চ্যালেঞ্জ করে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। জিজ্ঞাসাবাদে শরীফ জানায় তার কাছে কোন স্বর্ণেরবার নেই । পরে ওই দিন রাত ৩টার দিকে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা শরীফকে নিয়ে উত্তরা উইমেন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে এক্সরে করে তার রেক্টামে ৩টি পোটলার অস্তিত্ব খুঁজে পান।

পেশায় শরীফ আহমেদ একজন মুদি ব্যবসায়ী। চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি ব্যবসার কাজে শরীফ বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া যান। ২০১৬ সালে তিনি মোট ১০ বার মালয়েশিয়াসহ বিভিন্ন দেশে ভ্রমন করেছেন। জব্দ করা স্বর্ণেরবার গুলো কাস্টমসের কাছে রয়েছে।