ব্রেকিং নিউজ

রাত ১:৫৫ ঢাকা, সোমবার  ২৪শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য গ্যাস সরবরাহের সিদ্ধান্ত

Like & Share করে অন্যকে জানার সুযোগ দিতে পারেন। দ্রুত সংবাদ পেতে sheershamedia.com এর Page এ Like দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকতে পারেন।

 

২০২১ সাল নাগাদ সাশ্রয়ী মূল্যে দেশের সকল নাগরিকের কাছে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিতে সরকার ১০০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য বিদ্যুৎ কেন্দ্রে গ্যাস সরবরাহের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
বিদ্যুৎ উৎপাদন স্বাভাবিক করে তুলতে সরকারের অঙ্গীকার অনুযায়ী গ্যাসের বর্তমান চাহিদা মেটানোর পর বিদ্যুৎ কেন্দ্রে গ্যাস সরবরাহের সিদ্ধান্ত নিয়েছে মন্ত্রণালয়।
বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা এ কথা জানান।
তিনি বলেন, এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী বীরবিক্রমের সভাপতিত্বে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, বিদ্যুৎ সচিব এম মনোয়ার ইসলাম এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বক্তব্য রাখেন।
বৈঠকে বিবিয়ানা-৩ এর গ্যাস সরবরাহ, নর্থ ওয়েস্ট পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানী লিমিটেড ও সিঙ্গাপুরের সিসবকোর্প ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের যৌথ উদ্যোগে বাস্তবায়নাধীন ৪০০ মেগাওয়াট ডুয়েল ফুয়েল সিসিপিপি ও কোডডা ২০০ মেগাওয়াট আইপিপি (ইন্ডিপেনডেন্ট পাওয়ার প্লান্ট) পাওয়ার লিমিটেড নিয়ে আলোচনা হয়েছে।
জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিব আবু বকর সিদ্দীক বাসসকে বলেন, আরো বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য গ্যাস সরবরাহের বিষয় বৈঠকে আলোচনা হয়েছে।
তিনি বলেন, নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য সরকারের অঙ্গীকার অনুযায়ী সরকার সকল বিদ্যুৎ কেন্দ্রে গ্যাস সরবরাহ করবে।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সরকার বিদ্যুৎ উৎপাদনের উন্নয়নে ইতোমধ্যেই বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণ করেছে এবং দেশের সার্বিক উন্নয়নে এই খাতের গুরুত্ব বিবেচনা করে এ খাতের উন্নয়নকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছে।
মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, বর্তমানে বিদ্যুৎ উৎপাদনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১১,২৬৫ মেগাওয়াট, যা দেশের ৬৮ শতাংশ জনগনের চাহিদা মেটাচ্ছে।
পাশাপাশি সরকার ১০,০০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনে সক্ষম কয়লাভিত্তিক বৃহত্তম বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের প্রকল্প গ্রহণ করেছে।