Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৫:১৯ ঢাকা, শুক্রবার  ১৬ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

বিদেশে ৯০ লাখ বাংলাদেশি

আজ আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস। ‘নিরাপদ অভিবাসন, দিন বদলের লক্ষ্য অর্জন’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে বাংলাদেশেও পালিত হচ্ছে দিবসটি। জাতিসংঘের নির্বাচিত প্রতিপাদ্য বিশ্বব্যাপী ‘কেউ পেছনে থাকবে না’! প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, বিশ্বের ১৬০টি দেশে প্রায় ৯০ লাখ বাংলাদেশি নাগরিক বিভিন্ন পেশায় কাজ করছেন, যা থেকে প্রাবাসী আয়ের হার বছরে প্রায় ৬১ দশমিক ৯০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। অর্থাৎ প্রায় ৬ হাজার ২০০ কোটি ডলার। এ দিবস উপলক্ষে দেওয়া বাণীতে জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন অভিবাসীদের সম্মান ও মর্যাদা অক্ষুণ্ন রেখে নীতি গ্রহণের জন্য সদস্য রাষ্ট্রগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ দিবস উপলক্ষে পৃথক বাণী দিয়েছেন। রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে প্রবাসীদের জন্য নতুন শ্রমবাজার অনুসন্ধান এবং প্রতারণা রোধে ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী তার বাণীতে মেধা, শ্রম ও নিষ্ঠা দিয়ে বিশ্বব্যাপী দেশের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বল করার জন্য অভিবাসী বাঙালি কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।১৬০টি দেশে কর্মরত ৯০ লাখ বাংলাদেশি
এদিকে অভিবাসী দিবস পালন উপলক্ষে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় তিন দিনব্যাপী কর্মসূচি পালন করছে। আজ বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শুরু হচ্ছে দু’দিনব্যাপী অভিবাসন মেলা। এ উপলক্ষে গতকাল আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন প্রত্যেক জেলায় প্রবাসীদের জন্য আবাসন প্রকল্প গ্রহণের ঘোষণা দিয়েছেন।বাংলাদেশি অভিবাসীদের বর্তমান চিত্র :বুধবারের সংবাদ সম্মেলনে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী জানান, ২০০৯ থেকে ২০১৩ সালের ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত ২৪ লাখ ৫১ হাজার৯৩ জন বাংলাদেশি কর্মী চাকরি নিয়ে বিদেশে গেছেন। এর মধ্যে ১ লাখ ৭৪ হাজার ২১৩ জন নারী কর্মী। মন্ত্রী জানান, ২০১৩ সালে নতুন ১২টি শ্রম উইং খোলা হয়েছে। বর্তমানে মোট উইংয়ের সংখ্যা ২৮টি। জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে বিশ্বের ১৬০টি দেশে প্রায় ৯০ লাখ বাংলাদেশি নাগরিক বিভিন্ন পেশায় সুনাম ও দক্ষতার সঙ্গে কাজ করছেন।

মন্ত্রী আরও জানান, বর্তমানে বছরে প্রবাসী কর্মীদের পাঠানো রেমিট্যান্স প্রবাহের হার ৬১ দশমিক ৯০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার, যা বিগত সময়ের চেয়ে প্রায় সাড়ে তিন গুণ বেশি ।এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, প্রবাসী কর্মীদের কল্যাণের জন্য জেলায় জেলায় প্রবাসী কল্যাণ আবাসন প্রকল্প গ্রহণের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। বিএমইটির উদ্যোগে জীবন বীমা চালুরও উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া বর্তমানে পিএসসি, জেএসসি, এসএসসি এবং এইচএসসি পর্যায়ে প্রবাসীদের সন্তানদের শিক্ষাবৃত্তি দেওয়া হচ্ছে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মালয়েশিয়ায় একটা সময়ে চাহিদার তুলনায় অনেক বেশি কর্মী পাঠানো হয়েছে। ফলে সে দেশে অসংখ্য কর্মী গিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করেছেন। এ কারণে মালয়েশিয়ার সরকারই অনিয়ন্ত্রিত শ্রম বাজার নিয়ন্ত্রিত করতে জি টু জি পদ্ধতি চালু করেছেন। তিনি বলেন, সমুদ্রপথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়ায় গিয়ে কেউ যেন নিজের বিপদ নিজে ডেকে না আনেন, সে জন্য সবাইকে সচেতন থাকতে হবে।বিশ্বব্যাপী অভিবাসী চিত্র : জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী সারা বিশ্বে বর্তমানে অভিবাসীদের সংখ্যা ২৩ কোটি ২০ লাখ। অভিবাসীদের প্রায় ৫০ শতাংশই দেশে নায্য মানবাধিকার থেকে বঞ্চিত। এ প্রেক্ষাপটেই জাতিসংঘ এ বছর ‘লিভিং নো ওয়ান অন বিহাইন্ড’ বা কেউ পেছনে থাকবে না’ এই প্রতিপাদ্য নির্বাচন করেছে।