ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৭:৪১ ঢাকা, শুক্রবার  ২১শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

'বিদেশের জেলখানায় বাংলাদেশী'
পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী

‘বিদেশের জেলখানায় ৯৬৪০ জন বাংলাদেশী’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেছেন, বিশ্বের ৩৮টি দেশের বিভিন্ন কারাগারে ৯ হাজার ৬৪০ জন বাংলাদেশী নাগরিক বন্দি রয়েছে।

তিনি আজ সংসদে সরকারি দলের সদস্য মো শামসুল হক টুকুর এক প্রশ্নের এ কথা জানান।

মন্ত্রী জানান, আটক বন্দিদের মধ্যে মিয়ানমারে ৯৮, সিঙ্গাপুরে ৮৭, নেপালে ১২, যুক্তরাষ্ট্রে ২৬, ভারতে ২ হাজার ৩৩৭, গ্রীসে ১২৩, জাপানে ৬৫, থাইল্যান্ডে ২৩, পাকিস্তানে ১৯, ফ্রান্সে ৪৬, যুক্তরাজ্যে ২১৮, কাতারে ১১২, সৌদি আরবে ৭০৩, জর্ডানে ৩৭, মিশরে ৫, দক্ষিণ কোরিয়ায় ১৬, তুরস্কে ৬৮, জর্জিয়া ২৬, কিরগিজস্তানে ১, ওমানে ১ হাজার ৪৮, বাহরাইনে ৩৭০, লেবাননে ২, মালয়েশিয়াতে ২ হাজার ৪৬৯, চীনে ৫, হংকংয়ে ২৪, মঙ্গোলিয়ায় ১, সংযুক্ত আরব আমিরাতে ১০৯৮, ব্রুনাইয়ে ৫, ইতালিতে ৫১, ইরাকে ১২১, মরিশাসে ৭, মেক্সিকোতে ৯৭, আজারবাইজানে ৬, মরক্কোতে ২, দক্ষিণ আফ্রিকাতে ১১, ব্রাজিলে ১, অস্ট্রেলিয়াতে ৩৯ এবং কুয়েতে ২৬১ জনসহ মোট ৯ হাজার ৬৪০ জন বাংলাদেশী কারাগারে আটক রয়েছেন।

তিনি বলেন, কোন দেশের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কারাগারে আটক থাকা বাংলাদেশী নাগরিকের বিষয়ে অবহিত করলে বা অন্য কোন মাধ্যমে সংবাদ পেলে তা যাচাই করে বাংলাদেশ দূতাবাস সে দেশের কারাগারে আটক বাংলাদেশীর বিষয়ে নিশ্চিত হয় এবং কনস্যুলার একসেসের মাধ্যমে তাদের সাথে দূতাবাস কর্তৃপক্ষ সাক্ষাৎ করে। ক্ষেত্রবিশেষে সংশ্লিষ্ট দেশের সরকারের সাথে আলোচনার মাধ্যমে মধ্যস্থতা করে তাদের মুক্তি ও দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

মাহমুদ আলী বলেন, আটককৃত বাংলাদেশী নাগরিকরা যাতে সুষ্ঠু বিচার প্রক্রিয়ার মাধ্যমে দ্রুত মুক্তি লাভ করতে পারে সেজন্য সংশ্লিষ্ট বাংলাদেশ দূতাবাস প্রয়োজনীয় আইনি সহায়তাসহ আনুষাঙ্গিক সহযোগিতা প্রদান করে থাকে।

তিনি বলেন, দূতাবাস মুক্তি পাওয়া অবৈধ বাংলাদেশী নাগরিকদের দেশের ফিরিয়ে আনার জন্য ট্রাভেল পারমিট প্রদান করে থাকে।