ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৬:৫৭ ঢাকা, সোমবার  ২০শে আগস্ট ২০১৮ ইং

বিদায়ী অর্থবছরে রেমিটেন্স আয়ে রেকর্ড সৃষ্টি

প্রবাসে বসবাসরত বাংলাদেশীরা সদ্যসমাপ্ত ২০১৪-১৫ অর্থবছরে এক হাজার ৫৩০ কোটি ৯৩ লাখ মার্কিন ডলারের রেমিটেন্স পাঠিয়েছে, যা দেশের ইতিহাসে এ যাবৎকালের মধ্যে সর্বোচ্চ। এর আগে সর্বোচ্চ রেমিটেন্স আয় ছিলো ২০১২-১৩ অর্থবছরে। ওই বছর প্রবাসীরা এক হাজার ৪৪৬ কোটি ১১ লাখ ডলারের রেমিটেন্স দেশে পাঠিয়েছিলো।
বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।
কেন্দ্রিয় ব্যাংক সূত্র জানায়, সদ্যসমাপ্ত অর্থবছরে এর আগের ২০১৩-১৪ অথবছরে তুলনায় ১০৮ কোটি ১০ লাখ ডলার বা ৭ দশমিক ৬০ শতাংশ বেশি রেমিটেন্স আয় হয়েছে। ২০১৩-১৪ অথবছরে রেমিটেন্স আয়ের পরিমাণ ছিলো এক হাজার ৪২২কোটি ডলার।
রেমিটেন্স আয় বৃদ্ধির প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের মূখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক ম. মাহফুজুর রহমান বাসসকে বলেন, ‘দেশের অর্থনীতি এবং বিনিয়োগের প্রতি প্রবাসীদের আস্থা বাড়ার কারনে রেমিটেন্স আয় বাড়ছে। প্রবাসীরা সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড এবং দেশের ব্যাংকিং খাতের প্রতি বেশি আস্থাশীল হয়ে উঠছে। তারা পরিবার-পরিজনের কাছে টাকা পাঠানোর পাশাপাশি দেশে বিনিযোগ করতে চাচ্ছে। যার ফলশ্রুতিতে রেমিটেন্স আয়ের প্রসার ঘটছে।’
শ্রমিক রফতানির বিষয়ে সম্প্রতি মালয়েশিয়া সরকারের সাথে বাংলাদেশের যে চুক্তি হয়েছে, তাকে তিনি রেমিটেন্স আয় বাড়াতে বিশেষ পদক্ষেপ বলে অভিহিত করেন। এতে নিকট ভবিষ্যতে বাংলাদেশের রেমিটেন্স আয় উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
কেন্দ্রিয় ব্যাংকের তথ্যমতে, সদ্যবিদায়ী অর্থবছরের সর্বশেষ জুন মাসে প্রবাসীরা ১৪৩ কোটি ১৭ লাখ ডলারের রেমিটেন্স পাঠিয়েছে। যা গত ২০১৩-১৪ অর্থবছরের জুন মাসের তুলনায় ১১ দশমিক ২৭ শতাংশ বেশি। ওই মাসে দেশে ১২৮ কোটি ৬৬ লাখ ডলারের রেমিটেন্স আসে।