ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ২:৪২ ঢাকা, শনিবার  ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

মাহবুব-উল-আলম হানিফ
মাহবুব-উল-আলম হানিফ, ফাইল ফটো

বিতর্কিত করতেই নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর পরিকল্পনা বিএনপির: হানিফ

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপি বলেছেন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন এবং নির্বাচন কমিশনকে বিতর্কিত করার জন্য নির্বাচনে অংশ নিয়েও তা থেকে সরে যাওয়ার পরিকল্পনা করছে বিএনপি। তিনি বলেন, বিএনপি কখনো নির্বাচনের ব্যাপারে আন্তরিক ছিল না এবং নির্বাচনকে বিতর্কিত করাই ছিল তাদের আসল উদ্দেশ্য।

মাহবুব-উল আলম হানিফ আজ সকালে রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন।

চলমান ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের চতুর্থ ধাপের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীদের নাম ঘোষণার জন্য এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
আগামী ধাপের নির্বাচন সহিংসতামুক্ত হবে আশা প্রকাশ করে মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, বিগত দুইধাপের নির্বাচনে দেশের বিভিন্ন জায়গায় সমাজিক ও গোষ্ঠিগত দ্বন্দ্বের কারণে সহিংস ঘটনা ঘটেছে যা অনভিপ্রেত ও দুঃখজনক।

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে হানিফ বলেন, কোন ধরনের নির্বাচনী সহিংসতা আওয়ামী লীগ দেখতে চায় না। মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য তারা দল-মতের উর্ধ্বে ওঠে যে কোন কঠোর আইনী পদক্ষেপ নেবে।

এ সময় নির্বাচন কমিশনের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ভোট অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করার দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের। নির্বাচন কমিশন সম্পূর্ণ স্বাধীন, নির্বাচনকে শান্তিপূর্ণ ও অবাধ করার জন্য তারা যে কোন ধরণের পদক্ষেপ নিতে পারেন।

তিনি বলেন, ইউনিয়ন পর্যায়ের নির্বাচনে সামাজিক ও গোষ্ঠিগত পর্যায়ের দ্বন্দ্বের কারণে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে থাকে। বিএনপি যখন রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় ছিলো সেই সময় ইউনিয়ন পর্যায় নির্বাচনে ব্যাপক সহিংসতা দেশবাসী লক্ষ্য করেছিলো।

বিএনপি নির্বাচন কমিশনকে বিতর্কিত করছে করছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, আমরা আশা করি বিএনপি তাদের অতীতের ভুল থেকে রাজনৈতিক শিক্ষা নিয়ে সুষ্ঠ ধারার রাজনীতিতে ফিরে আসবে।

নির্বাচন বর্জন করে নয়, বরং অসুস্থ রাজনীতি বর্জন করে মানুষের পক্ষে কাজ করে মানুষের মন জয় করে মানুষের আস্থা অর্জন করার জন্য বিএনপির প্রতি আহবান জানান তিনি।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি এমপি, এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজ্জাম্মেল হক এমপি, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ড. আবদুর রাজ্জাক এমপি, দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. বদিউজ্জামান ডাবলু, উপ-প্রচার সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, কার্যনির্বাহী সদস্য সুজিত রায় নন্দী, আমিনুল ইসলাম আমিন, এসএম কামাল হোসেন প্রমুখ।

এর আগে আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়