Press "Enter" to skip to content

‘বিচারপতি শামসুদ্দিনের বক্তব্য প্রকাশ ও প্রচার করা যাবে’

অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিকের দেওয়া দেশের ‘বিচার বিভাগ এবং উচ্চ আদালতের মর্যাদা ক্ষুণ্নকারী’ বক্তব্য প্রকাশের ওপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে করা রিট খারিজ করে দিয়েছে হাইকোর্ট।
সুতরাং নিষেধাজ্ঞা না থাকায় বিচারপতি শামসুদ্দিনের বক্তব্য প্রকাশ ও প্রচার করা যাবে।
মঙ্গলবার বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি কৃষ্ণা দেবনাথের হাইকোর্ট বেঞ্চ প্রাথমিক শুনানি শেষে রিটটি উত্থাপিত হয়নি বলে খারিজ করে দেন।
গত সোমবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী এস এম জুলফিকার আলীর পক্ষে ব্যারিস্টার এহসানুর রহমান এ রিট আবেদন দায়ের করেন।
রিট আবেদনে তথ্য সচিব, বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি অথরিটির (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালককে বিবাদী করা হয়।
জুলফিকার আলী সাংবাদিকদের বলেছেন, বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী বিভিন্ন মিডিয়ায় এবং টক শো-তে বিচার বিভাগ এবং প্রধান বিচারপতিকে নিয়ে বিভিন্ন ‘আপত্তিকর, কটূক্তিমূলক ও মানহানিকর’ বক্তব্য দিচ্ছেন বলে তা প্রকাশ বন্ধে এই রিট আবেদন করেছেন তিনি। জনমনে বিভ্রান্তি এড়াতে জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা-২০১৪ অনুযায়ী বিচারপতি শামসুদ্দিনের বক্তব্য প্রকাশ ও প্রচার বন্ধ চেয়েছেন তিনি।
শেয়ার অপশন:
Don`t copy text!