ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১২:৪২ ঢাকা, শুক্রবার  ২০শে এপ্রিল ২০১৮ ইং

মুস্তফা কামাল

বিগত ৮বছরে বাংলাদেশের অগ্রগতি অভাবনীয় : পরিকল্পনামন্ত্রী

পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, গত আট বছরে বাংলাদেশের অভাবনীয় অগ্রগতি অর্জিত হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টি সম্পন্ন ভিশন ও গতিশীল নেতৃত্বে এটা সম্ভব হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে বীরের গৌরবোজ্জ্বল ভাবমূর্তি নিয়ে এ বিশ্বে যে জাতির জন্ম হয়েছিল, সে জাতি বহু চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে আজ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হতে যাচ্ছে।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান,২০৩০ সালের মধ্যে দারিদ্রমুক্ত এবং ২০৪০ সালের মধ্যে ১০টি ধনী দেশের কাতারে সামিল হওয়ার মিশন নিয়ে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

বাংলাদেশে ভারতের হাই কমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা আজ বৃহস্পতিবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রীর দপ্তরে এক সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হলে এক বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন।

সাক্ষাৎকালে তারা দ্বি-পক্ষীয় এবং পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়াদি নিযেও আলোচনা করেন। আলোচনায়,বিশেষভাবে ভারতীয় লাইন ক্রেডিটের আওতাধীন বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প স্থান পায়।

এ সময় পরিকল্পনামন্ত্রী বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বিদ্যমান সুসম্পর্কের কথা উল্লেখ করে বলেন,বন্ধু-প্রতীম ও নিকট প্রতিবেশী এ দু’দেশের চমৎকার সম্পর্ক আগামী দিনগুলোতে আরো সুদৃঢ় হবে।

তিনি মহান স্বাধীনতা সংগ্রামে ভারতের অবদান শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করে বলেন,ঐতিহাসিকভাবেই দু‘দেশের মানুষের মধ্যে রয়েছে কৃষ্টি ও সাংস্কৃতিক অভিন্নতা। ভৌগলিক সীমা রেখায় দু‘টি দেশ ভিন্ন হলেও বন্ধুপ্রতীম দু‘দেশের জনগণের মনের সীমা-রেখা ভিন্ন হবার নয়।

আ হ ম মুস্তফা কামাল ভারতীয় হাইকমিশনারের অবগতির জন্য বাংলাদেশের চলমান বিভিন্ন প্রকল্পসহ দেশের সার্বিক অর্থনীতির অগ্রগতির সূচক তুলে ধরেন। তিনি বলেন, সরকারের বিনিয়োগ বান্ধব নীতির ফলে বাংলাদেশ বিনিয়োগের জন্য এখন আকর্ষনীয় স্থান।

মন্ত্রী বাংলাদেশের রেলযোগাযোগ, বিদ্যুৎ, পরিবহন এবং বিভিন্ন অবকাঠামো খাতে ভারতীয় বিনিয়োগকারীদের এগিয়ে আসতে হাইকমিশনারের সহায়তা কামনা করেন।

হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বিভিন্ন উন্নয়ন সূচকে বাংলাদেশে অগ্রগতির প্রশংসা করেন। তিনি আশা করেন, বাংলাদেশের চলমান অগ্রগতি অব্যহত থাকলে এ অঞ্চলের অগ্রগতির জন্য বাংলাদেশ অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে।