ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৬:৫৬ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২৪শে এপ্রিল ২০১৮ ইং

ড. হাছান মাহমুদ
ড. হাছান মাহমুদ, ফাইল ফটো

বিএনপি মুমূর্ষু রোগীর মতো মুখ থুবড়ে পড়া ‘জনবিচ্ছিন্ন’ দল : ড. হাছান

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি মুমূর্ষু রোগীর মতো মুখ থুবড়ে পড়ে আছে, বিএনপি এখন জনবিচ্ছিন্ন দল।

আজ বৃহষ্পতিবার এক বিবৃতিতে তিনি এই কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, শেখ হাসিনা তার দক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশের দারিদ্র্যের হার ৪০ শতাংশ থেকে ২০ শতাংশের নীচে নামিয়ে এনেছেন। অপরদিকে খালেদা জিয়ার অযোগ্য নেতৃত্বের কারণে বিএনপি এখন মুমূর্ষু রোগীর মতো মুখ থুবড়ে পড়ে আছে। খালেদা জিয়ার নির্বাচনে না আসার ভুল সিদ্ধান্ত, পেট্রোল বোমার রাজনীতির কারণে বিএনপি এখন জনবিচ্ছিন্ন দল।

সহায়ক সরকারের বিষয়ে বিএনপি নেতাদের দেয়া বক্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, বাংলাদেশের সংবিধানে নির্বাচিত সহায়ক সরকার নামে কোন কিছুর অস্তিত্ব নেই। তাই সংবিধান মেনে জনগণের দ্বারা নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক বলেন, বিএনপি কখনোই মানুষের দুঃখ-দুর্দশায় পাশে দাঁড়ায় না বরং মানুষের দুঃখ-দুর্দশা নিয়ে রাজনীতি করার অপচেষ্টা করে। হাওর অঞ্চলে প্রাকৃতিক দুর্যোগের ফলে সৃষ্ট বন্যার্ত এলাকায় আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দু’বার গেছেন এবং ত্রাণ বিতরণ করেছেন। রিকশায় চড়ে মানুষের সমস্যার কথা শুনেছেন অথচ বিএনপি নেত্রীকে একবারের জন্যও সেখানে দেখা যায়নি। উপরন্তু তিনি এবং তার দলের নেতৃবৃন্দ ঢাকায় বসে সংবাদ সম্মেলনে সরকারের সমালোচনা করেছেন, ত্রাণ নিয়ে নানা প্রশ্ন তুলেছেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, গত এক দশকের মধ্যে এবারই তেমন কোন বড় ধরনের দুর্ঘটনা ও রাস্তাঘাটে ভোগান্তি ছাড়া দেশের মানুষ পরিবার পরিজনের সাথে ঈদ করতে বাড়ি যেতে পেরেছে। সরকার এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের রমজান মাসের শুরু থেকেই ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন রাখতে নিরলসভাবে কাজ করে গেছেন।

বিবৃতিতে হাছান মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখন কেবল বাংলাদেশের নেত্রীই নন তিনি একজন আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত বিশ্বনেতা। তার বলিষ্ঠ ও গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশ নিম্ন আয়ের দেশ থেকে নিম্ন মধ্যবিত্ত দেশে পরিণত হয়েছে। বিশ্বের উন্নয়নশীল দেশগুলোর মধ্যে যে পাঁচটি দেশ উচ্চ প্রবৃদ্ধি ধরে রাখতে পেরেছে বাংলাদেশ তার মধ্যে পঞ্চম।

হাছান মাহমুদ বলেন, চট্টগ্রামে অতিবৃষ্টিতে সৃষ্ট পাহাড় ধসের প্রথম দিন থেকেই সরকার আক্রান্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। পাহাড় ধসের পরদিন সকালেই ত্রাণমন্ত্রী আক্রান্ত এলাকায় ছুটে গেছেন, ত্রাণ বিতরণ করেছেন। সরকারের পাশাপাশি আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা প্রথম থেকেই দিনরাত মানুষের পাশে থেকেছেন।

বিবৃতিতে তিনি বলন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের পরদিন সকালেই ঢাকা থেকে ছুটে গেছেন। স্থানীয় নেতাকর্মীদের ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে থাকার নির্দেশ দিয়ে গেছেন। কিন্তু বিএনপির কোন পর্যায়ের কোন নেতাকর্মীকে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় যেতে দেখা যায়নি। প্রকৃতপক্ষে বিএনপি মানুষের পাশে দাঁড়ায় না উল্টো রাজনীতির নামে তারা মানুষের দুর্দশা সৃষ্টি করে। বিএনপি মানুষকে জিম্মি করে, হত্যা করে, অবরুদ্ধ করে ক্ষমতায় যেতে চায়। -বাসস