ব্রেকিং নিউজ

সকাল ১০:৪১ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

মাহবুব উল আলম হানিফ
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, ফাইল ফটো

বিএনপি পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় যেতে চায় :হানিফ

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, বিএনপি গণতন্ত্রে বিশ্বাস করেনা। তারা ষড়যন্ত্র করে পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় যেতে চায়।

তিনি বলেন, বিএনপি গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না বলে নির্বাচনে না আসাতে নানা প্রকার ফন্দি এঁটে চলেছে। তারা চায় দেশের এই শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বিনষ্ট করে পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় যেতে। কিন্তু বাংলার মাটিতে তাদের সেই স্বপ্ন পূরণ হবে না। ’

হানিফ আজ সকালে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ মিলনায়তনে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহাতাব উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম, প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন। বর্ধিত সভায় আরও বক্তব্য রাখেন নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন প্রমুখ।

হানিফ বলেন শেখ হাসিনার সাড়ে ৯ বছরের শাসনামলে দেশ আজ উন্নতির শিখরে অবতীর্ণ হয়েছে। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ এবং মাদকের মত মরণব্যাধির বিরুদ্ধে শেখ হাসিনা দেশব্যাপী যে দৃঢ় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন তা ইতোমধ্যে দেশে এবং বহিঃবিশ্বে সুনাম বৃদ্ধি করেছে।’

‘বিএনপি রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থেকে দেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করেছে’ উল্লেখ করে হানিফ বলেন ‘অসহযোগ আন্দোলনের নামে বিএনপি সারাদেশে যে আগুন সন্ত্রাস এবং পেট্টোল বোমা মেরে নিরীহ জনগণ হত্যা ও জাতীয় সম্পদ বিনষ্ট করে যে অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছিলো, জনগণ তা আজাও ভুলে যায়নি।’

হানিফ তৃলমূল পর্যায়ে দলকে সংগঠিত করে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থীকে বিজয়ী করতে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখার জন্য দলের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

হাসান মাহমুদ বলেন ‘বিএনপি দেশের সুনাম নষ্ট করতে দেশ ও দেশের বাইরে গিয়ে শুধু সরকারের সমালোচনায় ব্যস্ত থাকে। তাদের দলীয় কার্যালয়ে শুধু ফটো সেশনের মাধ্যমে রাজনৈতিক কর্মকান্ড পরিচালিত হচ্ছে। জনগণ আজ তাদের সাথে নেই। তাই তারা নির্বাচনকে ভয় পায়।’