Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৯:১১ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২০শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু
শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু,ফাইল ফটো

‘বিএনপি থেকে দূরে থাকার পরামর্শ আমুর’

amu18শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, বিএনপি কখনো দেশের ভালো চায় নাÑ এ কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, তারা আন্দোলনের নামে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করেছে। সরকার উৎখাতের জন্য একের পর এক ষড়যন্ত্র করেও সফল হচ্ছে না। পাকিস্তান যে ভাষায় কথা বলছে, বিএনপিও সেই একই ভাষায় কথা বলছে। বিএনপি পাকিস্তানের এজেন্ডা বাস্তাবায়ন করতে চাইছে। মন্ত্রী তাদের কাছ থেকে দেশের মানুষকে দূরে থাকার পরামর্শ দেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের দক্ষিণাঞ্চলকে সিঙ্গাপুরে রূপান্তরিত করার কাজ করছেন। পদ্মা সেতুর সাথে রেল সংযোগ করে দেয়া হচ্ছে। এর ফলে দ্রুততম সময়ের মধ্যে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করতে পারবেন। তিনি বলেন, পায়রা সমুদ্র বন্দরের কাজ শেষ হয়ে গেলে সেখানে অসংখ্য মানুষের কর্মসংস্থান হবে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলেই দেশের উন্নয়ন হয়।

ঝালকাঠি পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র এবং কাউন্সিলরদের পক্ষ থেকে আজ শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুকে নাগরিক সংবর্ধনায় বক্তৃতাকালে এ কথা বলেন।

নাগরিক সংবর্ধনার জবাবে শিল্পমন্ত্রী বলেন, ‘ঝালকাঠি পৌরসভাকে তিনি ১৯৭৩ সালে তৃতীয় শ্রেণিতে উন্নিত করেছিলেন। আবার ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে ১৯৯৮ সালে পৌরসভাকে প্রথম শ্রেণিতে রূপান্তরিত করা হয়।’ তিনি বলেন, ভবিষ্যতে ঝালকাঠি পৌরসভাকে একটি মডেল পৌরসভায় উন্নীত করা হবে।

শিল্পমন্ত্রী  বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পরেও ষড়যন্ত্রকারীরা থেমে থাকেনি। তারা জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করেছে। শেখ হাসিনাকে কয়েক দফায় হত্যা করতে চেয়েছিল কিন্তু পারেনি। দেশের মানুষের ভালোবাসার কারণে আল্লাহ তাকে বাঁচিয়ে রেখেছেন। তিনি বেঁচে আছেন বলেই দেশের উন্নয়ন হচ্ছে। তিনি বলেন, সেই ষড়যন্ত্রকারীরাই আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়কে হত্যার পরিকল্পনা করছে। তাদের সেই ষড়যন্ত্রও আজ জাতির সামনে ফাঁস হয়ে গেছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ঝালকাঠি পৌরসভার নবনির্বাচিত পৌর মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মো. মিজানুল হক চৌধুরী, পুলিশ সুপার সুভাষ চন্দ্র সাহা ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খান সাইফুল্লাহ পনির।

মঞ্চে উপবিষ্ট ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক মোবারক হোসেন মল্লিক, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সুলতান হোসেন খান, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান রসূল, চেম্বার সভাপতি মো. মাহাবুব হোসেন, নলছিটি পৌর মেয়র তসলিম উদ্দিন চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আরিফ হোসেন খান, জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ মনিরুল ইসলাম তালুকদার, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুর রশীদ ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুহা. আব্দুর রকিব।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মন্ত্রীর উদ্দেশ্যে মানপত্র পাঠ করেন অধ্যাপক এস এম শাহজাহান।

মন্ত্রী আমির হোসেন আমুর হাতে সোনার নৌকা এবং পৌরসভার সোনার চাবি তুলে দেন মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদার।