আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপি বলেছেন, ‘২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ে বিএনপির শীর্ষ পর্যায়ের নেতৃত্বে জড়িত থাকার বিষয়টি প্রমাণিত হয়েছে। তাদের (বিএনপির নেতা) আদালত দন্ড প্রদান করার মধ্যে দিয়ে প্রমাণিত হয়েছে বিএনপি একটি সন্ত্রাসী দল।’

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে কুষ্টিয়া জেলা পরিষদ আয়োজিত ‘সরকারের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় গণমাধ্যমের ভুমিকা শীর্ষক আলোচনা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক’ অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার আগে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘জনবিচ্ছিন্ন সুবিধাবাদী চরিত্রের লোক নিয়ে দেশ ও জাতির কোন কল্যাণে আসবে না, দেশের উন্নয়নেও কোন ভূমিকা রাখবে না। সুতরাং এই জোটকে জনগণ অতীতে যেভাবে প্রত্যাখ্যান করেছে ভবিষ্যতে এভাবে প্রত্যাখ্যান করবে।’

বিএনপি ও বিএনপি’র নেতৃত্বাধীন জোটের সমালোচনা করে মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, ‘অতীতের মত বিএনপি যদি নাশকতা করতে চায়, পেট্রোল দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা, জালাও-পোড়াও-এর মাধ্যমে দেশের সম্পদ নষ্ট করার মত সন্ত্রাসী কাজ করে তাহলে তাদের মাশুল দিতে হবে। তারা যদি রাজনৈতিক কর্মসূচির নামে অতীতের মত আবারও সন্ত্রাসী কাজ করতে চায় তাহলে তাদের কঠিন মাশুল দিতে হবে। বাংলাদেশে কোন সন্ত্রাসী কর্মকান্ড জনগণ এবং সরকার বরদাস্ত করবে না।’

এ সময় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী রবিউল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী, কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডাঃ এস এম মুস্তানজিদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।