ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৫:২২ ঢাকা, বুধবার  ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

হাসানুল হক ইনু
তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু, ফাইল ফটো

বিএনপি আসলে পাকিস্তানেরই প্রক্সি বা দালাল : ইনু

তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেছেন, বিএনপি আসলে পাকিস্তানেরই প্রক্সি, ‘বাংলাদেশকে স্বাধীনতার পথে রাখতে ৭ মার্চে বঙ্গবন্ধু যেমন পাকিস্তানকে বিদায় দেন, তেমনি পাকিস্তানের ‘প্রক্সি’ বা দালালদেরও আজ বিদায় জানাতে হবে।’

১৯৭১ সালের ৭ মার্চ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ভাষণের ওপর বৃহস্পতিবার ঢাকায় দুপুরে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে কর্ণেল তাহের মিলনায়তনে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ আয়োজিত সভা এবং বিকালে জাতীয় জাদুঘর আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতাদ্বয়ে তিনি এ আহ্বান জানান।

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘পাকিস্তানের সঙ্গে যেমন মিটমাট সম্ভব হয়নি, তেমনি পাকিস্তানের প্রক্সি-দালালচক্র বিএনপি-খালেদা জিয়ার সঙ্গেও কোনো মিটমাটের অজুহাতে কোনো আপোষ সম্ভব নয়। তখন যাদের পাকিস্তানপ্রীতি ছিল, তারা বোঝেনি যে, পাকিস্তান সবসময়েই চক্রান্তকারী ও বাংলাদেশ অস্বীকারকারী। ঠিক তেমনই এখন যাদের বিএনপিপ্রীতি রয়েছে, তারা মিটমাটের কথা বলেন, কিন্তু জানে না, বিএনপি আসলে পাকিস্তানেরই প্রক্সি, রাজাকারী ছাড়েনি’।

তিনি বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তানের সকল চক্রান্ত নস্যাৎ করে দিয়ে বাংলাদেশকে নিজের পথে নিতে ৭ মার্চের মঞ্চে দাঁড়িয়েছিলেন। এই ঐতিহাসিক ভাষণের মধ্য দিয়ে তিনি কার্যত দেশের কর্তৃত্ব গ্রহণ এবং নিরস্ত্র জনগণকে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত করেন। জাতিসংঘের স্বীকৃতির মাধ্যমে একটি জাতির জন্য দেয়া পথনির্দেশ আজ বিশে^র সামনে অনন্য উদাহরণ।’

জাসদ সভাপতি বলেন, ‘বাংলা ভাষার বিরুদ্ধে ’৫২ তে পাকিস্তানের চক্রান্ত, ’৫৪-এর নির্বাচনে বিজয়ী যুক্তফ্রন্টের সরকার ভেঙ্গে দেয়া, ’৬৬-এর ছয়দফা আন্দোলনের বিরুদ্ধে মিথ্যা আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা দেয়া ও ’৭০-এর নির্বাচনে বিজয়ী আওয়ামী লীগকে সরকার গঠন করতে না দেয়া-এই চার চক্রান্তের কালো থাবা থেকে বাঙ্গালী জাতিকে মুক্ত করতে ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু ডাক দিয়েছিলেন-এবারের সংগ্রাম, স্বাধীনতার সংগ্রাম।’

ইনু বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বুঝেছিলেন পাকিস্তানের সঙ্গে নির্বাচন-গণতন্ত্র-সংসদ এসব কথা বলে লাভ নেই। আজ আমাদের বুঝতে হবে, তাদের ‘প্রক্সি’দের সাথেও এসবের অজুহতে মিটমাটের সুযোগ নেই, কারণ তারাও দেশের বিরুদ্ধে ক্রমাগত চক্রান্তকারী।’

জাসদের সভায় সহ-সভাপতি মীর হোসাইন আখতারের সভাপতিত্বে দলীয় নেতৃবৃন্দের এড. হাবিবুর রহমান শওকত, শফিউদ্দিন মোল্লা, শহিদুল ইসলাম, নাদের চৌধুরী, শওকত রায়হান, রোকনুজ্জামান, মাইনুর রহমান, মহিবুর রহমান প্রমুখ সভায় বক্তব্য রাখেন।

বিকালে জাতীয় জাদুঘরের মহাপরিচালক ফয়জুল লতিফ চৌধুরীর সভাপতিত্বে জাদুঘর আয়োজিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন অধ্যাপক সৈয়দ আনোয়ার হোসেন ও কবি কামাল চৌধুরী। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপক অধ্যাপক মেসবাহ কামালের ৭ মার্চের ওপর সুলিখিত প্রবন্ধভিত্তিক আলোচনা করেন। -বাসস