ব্রেকিং নিউজ

রাত ১০:১৭ ঢাকা, বুধবার  ২০শে জুন ২০১৮ ইং

মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম, ফাইল ফটো

‘বিএনপি আমলে সারের জন্য কৃষক হত্যা হয়’ – মায়া

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, বীরবিক্রম বলেছেন, বিএনপির শাসনামলে সারের জন্য কৃষকদের গুলি করে হত্যা করা হয়, পক্ষান্তরে আওয়ামী লীগের শাসনামলে মুদি দোকানেও সার পাওয়া যায়। সঠিক পরিকল্পনার কারণে সারের মজুদ চাহিদার চেয়েও বেশি। এখানেই এ সরকারের সাফল্য।

তিনি আজ শনিবার বিকেলে মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদের মায়া বীরবিক্রম মিলনায়নে উপজেলা কৃষকলীগের ত্রিবাষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।

সম্মেলনে আলহাজ্ব অখিল উদ্দিনকে সভাপতি ও জিএম ফারুককে সাধারণ সম্পাদক করে ৩ বছরের জন্য ৭১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটির নাম ঘোষণা করা হয়।

কৃষকলীগ নেতা অখিল উদ্দিনের সভাপতিত্বে সম্মেলনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা রিয়াজ উদ্দিন মানিক, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ মঞ্জু, মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি এম এ কুদ্দস বক্তব্য রাখেন।

সম্মেলনের উদ্বোধন করেন কৃষকলীগের চাঁদপুর জেলা সভাপতি জয়নাল আবেদীন প্রধান। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা সাজেদুল হোসেন চৌধুরী দীপু।

মায়া চৌধুরী বলেন, মতলবের কৃষকদের স্বনির্ভরতা উপলব্ধি করে ৬২ কিলোমিটার পরিধির সেচ প্রকল্প করা হয়েছে। বর্তমান সরকার ৫ হাজার একর জমি নিয়ে বীজ উৎপাদন খামার করার প্রকল্প নিয়েছে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ কৃষক বাঁচাও দেশ বাঁচাও শ্লোগান নিয়ে ক্ষমতায় এসেই সকল কৃষি উপকরণের মূল্য কমিয়েছে। কৃষকদের প্রণোদনা দিয়ে উৎপাদন বৃদ্ধির উদ্যোগ নিয়ে দেশকে কৃষিপণ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করেছে। মায়া চৌধুরী আরও বলেন কৃষকদের জন্য ১০ টাকায় ব্যাংকের হিসাব খোলার সুযোগ করে দিয়ে বিশ্বে এক নজীরবিহীন উন্নয়ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে সরকার। বিগত বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের প্রণোদনা দিয়ে, ভর্তুকি দিয়ে ঘুরে দাঁড়াবার ব্যবস্থা করেছে। কৃষির উন্নয়ন ও গণতন্ত্র রক্ষায় আগামী নির্বাচনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহবান জানান মন্ত্রী।

কৃষকদের উন্নয়ন ভাবনা চিন্তা করে প্রত্যেক সেচকলে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হয়েছে, কৃষিঋণের ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী উল্লেখ করেন। কৃষকদের প্রত্যেকটি ইউনিট সুসংগঠিত করে দেশকে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলতে তিসি কৃষক নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানান।