ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৬:২৪ ঢাকা, বুধবার  ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

তোফায়েল আহমেদ
বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, ফাইল ফটো

বিএনপিসহ পাক প্রেতাত্মারা দেশের উন্নয়ন দেখে না : বাণিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমদ বলেছেন, বিএনপিসহ পাকিস্তানের প্রেতাত্মারা বাংলাদেশের উন্নয়ন চোখে দেখেন না। মিথ্যা তথ্য দিয়ে গবেষণা প্রতিবেদন তৈরি করে উন্নয়নকে ম্লান করতে যারা বাংলাদেশকে স্বৈরশাসনের দেশ বানাতে চায় তারা সব সময়ই এদেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।

দুপুরে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে ‘নৌপরিবহণ সেক্টরে অর্জিত সাফল্য, চলমান কার্যক্রম ও ভবিষ্যত পরিকল্পনা’ শীর্ষক এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এলডিসিদেশ থেকে বাংলাদেশের উত্তরণ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন নৌপরিবহণ মন্ত্রী শাজাহান খান।
বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মেজর(অব:) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম। স্বাগত বক্তব্য রাখেন নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব আবদুস সামাদ।

তোফায়েল আহমদ বলেন, বাংলাদেশের বিস্ময়কর উত্থান বিএনপিসহ স্বাধীনতা বিরোধীরা মেনে নিতে পারছে না। আজ বাংলাদেশের উন্নয়নে ঈর্ষাণি¦ত হয়ে দেশের বিরুদ্ধে নানা ষড়যন্ত্র করছে।

জাতীয় গণহত্যা দিবসের কথা উল্লেখ করে বলেন, পৃথিবীর কোন দেশে অপারেশন সার্চ লাইট নামে এক রাতে এক লাখ লোক হত্যা করার ঘটনা আর ঘটেনি। এদেশে বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আমরা আজো পাকিস্তানের দাসত্বে থাকতাম। জাতির পিতার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ বাংলাদেশ যখন উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা লাভ করছে তখন আবার একটি মহল নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেন, আজ যখন বিভিন্ন আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে তখন বিএনপির নেতা-কর্মীদের চোখে যেন ছানি পড়েছে। তারা উন্নয়নকে দেখতে পাচ্ছে না। কিন্তু তার সুফল ভোগ করছে।

মেজর (অব:) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম শুধু রাজধানী নয় দেশের সব জেলায় সমানভাবে উন্নয়ন কাজ শুরুর আহবান জানান।

সভাপতির বক্তব্যে শাজাহান খান বলেন, নৌপরিবহণ সেক্টরে অর্জিত সাফল্য , চলমান কার্যক্রম ও ভবিষ্যত পরিকল্পনা বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। তিনি হিংসা বিদ্বেষ বাদ দিয়ে আগামী দিনে উন্নত বাংলাদেশ গঠনে সবাইকে এক যোগে কাজ করার আহবান জানান।

সেমিনারে নৌ পরিবহণ মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন বন্দরের উন্নয়ন কর্মকান্ড ও ভবিষ্যত পরিকল্পনা তুলে ধরে একটি প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হয়।