ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৪:৩৭ ঢাকা, বুধবার  ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

বিএনপির ৪৩ বছরের প্রচারণা মিথ্যাচার হিসেবে প্রমাণিত : নাসিম

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বিএনপি দীর্ঘ ৪৩ বছর ইন্দিরা-মুজিব চুক্তিকে গোলামী চুক্তি হিসেবে প্রচারণা চালিয়েছে। যা আজ মিথ্যাচার হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে।
শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, কারণ ওই চুক্তির মাধ্যমেই ভারত ও বাংলাদেশের সীমানা নির্ধারণ বিল ভারতের সংসদে পাশ হয়েছে এবং বেগম জিয়া এ বিশাল অর্জনের জন্য শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ না দিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ধন্যবাদ দিয়েছেন।
আজ দুপুরে কাজীপুর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।
মোহাম্মদ নাসিম দলের নেতা-কর্মীদের বিএনপির মিথ্যাচারের জবাব দেয়ার নির্দেশ দিয়ে বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। আরো এগিয়ে যাবে।
বিএনপি-জায়ামাত জোটের ৫ জানুয়ারির নির্বাচন বর্জন এবং সিটি নির্বাচনে অংশ নিয়েও সরে দাঁড়ানোর কঠোর সমালোচনা করে তিনি আন্দোলন ও নির্বাচন থেকে পালানোর অভ্যাস ত্যাগ করে ২০১৯ সালের নির্বাচনে অংশ নেবার জন্য বেগম জিয়ার প্রতি আহবান জানান।
বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার জঙ্গী দমন ও উন্নয়নে প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে খালেদা জিয়া দীর্ঘ ৯২ দিন জনগণের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে শূন্য হাতে ঘরে ফিরেছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, এটি তার (খালেদা) আন্দোলনের চরম পরাজয়। জনগণের কাছে সারেন্ডার ছাড়া আর কিছুই নয়।
বর্তমান সরকার বিনা যুদ্ধে সমুদ্র বিজয় ও স্থল সীমান্ত বিজয় করেছে উল্লেখ করে ১৪ দলের মুখপাত্র ও সিনিয়র নেতা মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বের কারণেই কয়েক হাজার একর ভূমি বাংলাদেশের মানচিত্রের সাথে যুক্ত হয়েছে। এতে ছিটমহলবাসী দীর্ঘ ৪৩ বছর পর তাদের অধিকার ফিরে পেয়েছে। এ জন্য ঢাকায় শেখ হাসিনাকে নাগরিক সংবর্ধনা দিয়ে বাঙ্গালী জাতি শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে।
তিনি বলেন, বিশ্ববাসীর কাছে শেখ হাসিনার নেতৃত্ব প্রশংসিত হয়েছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আগমনের পর বিভিন্ন উন্নয়ন চুক্তি স্বাক্ষরের মাধ্যমে বাংলাদেশ আরও এগিয়ে যাবে বলেও তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
কাজীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শওকত হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বর্ধিত সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু মোহাম্মদ গোলাম কিবরিয়া, কাজীপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক বকুল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান, জিএম তালুকদার মধু, রেফাজ উদ্দিন মাস্টার, অধ্যক্ষ আব্দুল মান্নান তালুকদার সাইফুল ইসলাম বেলাল, সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান দুদু, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জাকিরুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি লুৎফর রহমান মুকুল এবং সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার ৪ ইউনিয়নের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকসহ অন্যান্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
মন্ত্রী এর আগে উপজেলা পরিষদ চত্বরে কমিউনিটি ক্লিনিকে এসে স্বাস্থ্যসেবা গ্রহণে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে জনসচেতনতামূলক প্রচারের জন্য রাজশাহী বিভাগের কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।
সেখানে তিনি বলেন, দেশের প্রায় ১৪ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে তৃণমূলের মানুষের দোড়গোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌছে দেয়া হয়েছে। অতীতের যে কোন বাজেটের চেয়ে এবারের বাজেটে স্বাস্থ্যখাতে আরো বেশি বরাদ্ধ দেয়া হয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। এ সময় সিরাজগঞ্জ সিভিল সার্জন ডা. শামসুদ্দিনসহ স্বাস্থ্য বিভাগের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।
সন্ধ্যায় রশীদপুরে ২২৫ পরিবারের মধ্যে বিদ্যুত সংযোগের উদ্বোধন করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বের কারণেই গ্রামগঞ্জের প্রতিটি ঘরে ঘরে বিদ্যুত পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। কোথাও আর অন্ধকার থাকবে না। এ সময় সিরাজগঞ্জ পল্ল¬ী বিদ্যুতের জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী তুষার কান্তি দেবনাথ এবং ডিজিএম সুলতান নাসিমুল হকসহ পল্ল¬ী বিদ্যুতের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।