Press "Enter" to skip to content

বিএনপির বিরুদ্ধে গোপন বৈঠকে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট জনগণের সাড়া না পেয়ে এখন পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের সঙ্গে গোপন বৈঠক করে নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র করছে।

তিনি বলেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর পাকিস্তান দুতাবাসে গোপন বৈঠকে এই ষড়যন্ত্র করেছে।

কাদের আরো বলেন, বিএনপি ২০১৪ সালের জাতীয় নির্বাচনের পুনরাবৃত্তি ঘটাতে চাইলে তা সম্ভব হবে না । দেশের জনগণ সর্বশক্তি দিয়ে তা প্রতিহত করবে।

ওবায়দুল কাদের আজ দুপুরে জেলা শহরের নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মত বিনিময় কালে এ কথা বলেন।

এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নোয়াখালী-৪ আসনে সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী একরামুল করিম চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ খায়রুল আলম সেলিম, নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র শহীদ উল্যাহ খান সোহেল, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শামছুদ্দিন সেলিম, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যন শিহাব উদ্দিন শাহীন, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল ওয়াদুদ পিন্টু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, মনোনয়ন বাণিজ্য নিয়ে বিএনপির ঘরের বিবাদ বাইরে ছড়িয়ে পড়ছে। মনোনয়ন বঞ্চিতরা বিএনপি অফিসে দফায় দফায় হামলা চালাচ্ছে এবং তালা ঝুলিয়ে দিচ্ছে। তিনি বলেন, মনোনয়ন বঞ্চিতদের নিয়ে তারা সংকটে পড়েছে। তাদের দাবি- হয় টাকা ফেরত দাও নইলে মনোনয়ন দাও।

কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ অনেক আগে থেকে কেন্দ্রীয় নেতাদের নিয়ে টিমওয়ার্ক শুরু করেছে। যাদেরকে মনোনয়ন দেওয়া হয়নি তাদের নির্বাচনী কাজে সম্পৃক্ত করা হয়েছে। এতে করে সুফলতাও পাওয়া যাচ্ছে। দলের বাইরে বিদ্রোহী তৎপরতা থাকবে না, যা আমাদের বিজয়কে ত্বরান্বিত করবে।

তিনি বলেন, আমাদের মনোনয়ন বঞ্চিতদের মূল্যায়ন করা হবে। সকল ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে দেশে যথাসময়ে একাদশ সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

ওবায়দুল কাদের আরো বলেন বিএনপি একটি সন্ত্রাসী দল হিসেবে বিদেশীদের কাছে স্বীকৃত। দন্ডিত,পলাতক আসামীর নেতৃত্বে যে দল চলছে তাদের দিয়ে দেশ চালানো সম্ভব নয়।

Mission News Theme by Compete Themes.