ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৬:১১ ঢাকা, শুক্রবার  ২১শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ড. হাছান মাহমুদ
আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, ফাইল ফটো

‘বিএনপির বক্তব্যই প্রমাণ করেছে গুপ্তহত্যায় বিএনপি জড়িত’

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, সন্ত্রাসী ও জঙ্গি দমনে পুলিশের সাঁড়াশি অভিযানের বিরুদ্ধে বিএনপির বক্তব্যই প্রমাণ করেছে, গুপ্তহত্যার সঙ্গে বিএনপি জড়িত।দেশকে অস্থিতিশীল করার উদ্দেশ্যে বিএনপি এখন নতুন ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে।

তিনি বলেন, আমার প্রশ্ন অভিযান হচ্ছে সন্ত্রাসী ও জঙ্গিদের বিরুদ্ধে কিন্তু বিএনপির এতো মাথা ব্যাথ্যা কেন? প্রতিদিন সংবাদ সম্মেলন করে বিএনপির নেতারা বলছে সরকার নাকি বিএনপিকে দমন করতে চাইছে।প্রকৃতপক্ষে তাদের (বিএনপি) বক্তব্যই প্রমাণ করেছে এসব গুপ্তহত্যার সঙ্গে বিএনপি-জামাত জড়িত।

আজ মঙ্গলবার সকালে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে সড়ক পরিবহণ শ্রমিক লীগের ১৪ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. হাছান মাহমুদ এসব মন্তব্য করেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, জামায়াত-শিবির আগে মানুষের হাত-পায়ের রগ কাটতো। আর এখন তারা তাদের কৌশল বদলে গুপ্তহত্যা শুরু করেছে। তারা জেমবি বা হরকাতুল জিহাদসহ বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠনের নাম দিয়ে এসব গুপ্তহত্যা করছে। এসব গুপ্তহত্যার পৃষ্ঠপোষকতা করছেন খালেদা জিয়া ও তার দল। বিএনপি নেত্রী এসব জঙ্গি-সন্ত্রাসীদের তার আঁচলের তলায় আশ্রয় দিয়েছেন।

আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মেহেনতি মানুষের প্রতিনিধিত্ব করে। আওয়ামী লীগের জন্মই হয়েছিল শ্রমিক-জনতার অধিকার প্রতিষ্ঠা করার জন্য। এ কারণেই আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসলে শ্রমিকের বেতন বাড়ে। কোন পাটকল বন্ধ হয় না বরং পাটকলের মালিক হয় শ্রমিকরা।অন্যদিকে বিএনপির রাজনীতির মূল উদ্দেশ্য হলো ক্ষমতায় যাওয়া।তারা অবৈধভাবে ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য হরতাল-অবরোধের ডাক দিয়েছিল। তারা মানুষের দাবি আদায়ের জন্য কোন আন্দোলন করেনি। আন্দোলনের নামে তারা নিরীহ পরিবহণ শ্রমিকদের পুড়িয়ে মেরেছিল।

সংগঠনের সভাপতি রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন সংগঠনটির বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ।