ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:০৮ ঢাকা, শনিবার  ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

হাসানুল হক ইনু
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, ফাইল ফটো

বিএনপি’র নেতৃত্বে ঐক্যের প্রস্তাব মূলত চক্রান্ত : ইনু

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, ‘বিএনপি’র নেতৃত্বে বৃহত্তর ঐক্যের প্রস্তাব আসলে নানা রঙ-ঢঙে দন্ডিত খালেদা জিয়ার মুক্তি, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ ও নির্বাচন বানচালেরই চক্রান্ত।’

তিনি বলেন, ‘২০০৮ সালের নির্বাচনের গণরায় ছিল একটি বাঁক বদলের রায়। জনগণের এ রায়ে বিএনপি-রাজাকার চক্র পিছু হটলেও তারা চক্রান্ত ছাড়েনি।

‘দেশের রাজনীতিতে বিষবৃক্ষের মতো একাত্তরের রাজাকার, পঁচাত্তরের খুনী, জঙ্গি ও আগুনসন্ত্রাসীদের আশ্রয় দিয়ে দেশে অস্বাভাবিক সরকার আনার ষড়যন্ত্রই করে চলেছে তারা। সেকারণে তাদের হাতে দেশ কোনোদিনই নিরাপদ নয়’ বলেন তথ্যমন্ত্রী।

তথ্যমন্ত্রী আজ রোববার দুপুরে রাজধানীর রামপুরায় বাংলাদেশ টেলিভিশন মিলনায়তনে বিটিভি জেলা প্রতিনিধি সম্মেলন ২০১৮-এ প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।

তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য বিষয়ক উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদ মুক্তি এমপি, তথ্য সচিব আবদুল মালেক এবং বিটিভির মহাপরিচালক এস এম হারুন-অর-রশীদ সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন।

হাসানুল হক ইনু এসময় বিটিভির জেলা প্রতিনিধিদেরকে মিথ্যাচার, গুজব ও তথ্যবিকৃতি থেকে দেশবাসীকে রক্ষায় নিয়োজিত সৈনিক হিসেবে অভিহিত করে বলেন, ‘রাষ্ট্র ও সংবিধানের পক্ষে থাকুন, শেখ হাসিনার বিস্ময়কর উন্নয়নে মানুষের জীবনের বাঁক বদলের গল্প তুলে আনুন, একইসাথে দেশ বিরোধীদের হাতে জীবন ধ্বংসের করুণ কাহিনীও আমাদের জানান।’

প্রতিটি জেলার জনমানুষের সকল খবর আরো বিস্তারিতভাবে তুলে ধরতে সরকার প্রতিটি বিভাগে বিটিভির কেন্দ্র স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে, বলেন মন্ত্রী।

বাংলাদেশ টেলিভিশনের ৬৪ জেলার প্রতিনিধিদের এ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন বিটিভি জেলা প্রতিনিধি সমিতির সভাপতি এম এ সালাম।

এর আগে সকালে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু রাজধানীর গুলশানে স্পেক্ট্রা কনভেনশন সেন্টারে বেসরকারি সংস্থা শেয়ার-নেট আয়োজিত ‘যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য জ্ঞান মেলা’য় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বলেন, ‘যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্যের অধিকার মানুষের মৌলিক অধিকার। আর এ অধিকার রক্ষা ও চর্চায় প্রয়োজন ব্যাপক জনসচেতনতা।’

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু

রাজধানীর গুলশানে স্পেক্ট্রা কনভেনশন সেন্টারে বেসরকারি সংস্থা শেয়ার-নেট আয়োজিত ‘যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য জ্ঞান মেলা’য় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু

নেদারল্যান্ডস দূতাবাসের উপ-প্রধান জেরন স্টীস, রেড অরেঞ্জ মিডিয়া এন্ড কমিউনিকেশন্স এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক অর্ণব চক্রবর্তী এবং ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির জেমস পি গ্র্যান্ট স্কুল অভ্ পাবলিক হেলথ এর ডিন অধ্যাপক সাবিনা ফয়েজ রশিদ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘শেখ হাসিনার সরকার বাংলাদেশকে যে বিস্ময়কর উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে চলেছেন, জনস্বাস্থ্য সেখানে একটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ দিক। মানুষের মৌলিক অধিকার হিসেবে নিরাপদ যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্যের অধিকার নিশ্চিত করার জন্য সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি সংস্থাগুলোর এগিয়ে আসার অর্থ হচ্ছে, আরো বেশি মানুষ সচেতন হচ্ছে।