ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১২:১১ ঢাকা, শুক্রবার  ২১শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

বিএনপি’র ক্ষমা চাওয়া উচিত

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ এমপি বলেছেন, তথ্য জালিয়াতির জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে বিএনপি’র ক্ষমা চাওয়া উচিত।
তিনি বলেন, ‘তারা দেশের মানুষের সঙ্গে জালিয়াতি করতে করতে এখন আন্তর্জাতিক নেতাদের সঙ্গেও জালিয়াতি শুরু করেছে।’
তিনি আরো বলেন, বিএনপি আগে ছিল মিথ্যাবাদীদের দল। বর্তমানে তারা জালিয়াতদের দলে পরিণত হয়েছে।
তিনি আজ দুপুরে রাজধানীর সেগুনবাগিচাস্থ বীরউত্তম খাজা নিজামুদ্দিন মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের উদ্যোগে‘ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন’ দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) নেতা অমিত শাহের সঙ্গে বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ফোনালাপ এবং যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডির্পামেন্টের সঙ্গে আলাপ সম্পর্কে ভিত্তিহীন বিবৃতি বিএনপি-জামায়াতের সাজানো নাটক বলেও তিনি উল্লেখ করেন। ।
জোটের সহ-সভাপতি মোবারক আলী শিকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. হাছান মাহমুদ এমপি।
জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানার পরিচালনায় সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন খাদ্যমন্ত্রী এবং ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট কামরুল ইসলাম এমপি।
এতে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক এডভোকেট বলরাম পোদ্দার প্রমূখ।
ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামেনেষ্টি ইন্টারন্যাশনাল এবং হিউম্যান রাইটস ওয়াচ দুষ্কৃতিকারীদের সহযোগীতে পরিণত হয়েছে।’
তিনি বলেন,‘ কেননা তারা বিএনপি নেত্রী আর মহাসচিবের মানবাধিকার দেখেন, মানুষের অধিকার নিয়ে কোন কথা বলেন না।’
বিশ্বের মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম জমায়েত বিশ্ব ইজতেমার মধ্যে বিএনপির অবরোধ অব্যাহত রাখার সমালোচনা করে হাছান বলেন, বিএনপি শুধু জনগণের নয়, ইসলামেরও শত্রু। কেননা পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম মুসলিম জমায়েত বিশ্ব ইজতেমার সময়ও বেগম খালেদা জিয়া অবরোধ প্রত্যাহার করেন নি।
এডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেন, ‘আন্তর্জাতিক মানবাধিকার বিষয়ক সংগঠন অ্যামেনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এবং হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বিএনপি-জামায়াতের দালাল। তারা মানবাধিকার সংস্থার নামে কলঙ্ক।’
তিনি বলেন, ‘তারা মানবাধিকার রক্ষার নামে বিএনপি-জামায়াতের দালালী করে। সেজন্য বাংলাদেশে তাদের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া উচিত।’