শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৪:৩৩ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২১শে ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ইং

রাশেদ খান মেনন
বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি এবং বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, ফাইল ফটো

‘বিএনপির ঐক্যের ডাক ছিল বিভ্রান্তি সৃষ্টির’

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেছেন, গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোঁরায় জঙ্গী হামলার পর বিএনপি জাতীয় ঐক্যের ডাকের যে কথা বলেছিল তা ছিল বিভ্রান্তি সৃষ্টির জন্য।

আজ বুধবার বেলা ২টায় ‘আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস’ উদযাপন উপলক্ষে ‘ভূমি সন্ত্রাস, সাম্প্রদায়িকতা ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ এবং আদিবাসীসহ প্রান্তিক জনগোষ্ঠির অধিকারের সুরক্ষা’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।

‘আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস’ উদযাপন কমিটি-২০১৬ রাজধানীর তোপখানা রোডে অবস্থিত সিরডাপ মিলনায়তনে এই সেমিনারের আয়োজন করে।

তত্তাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা এডভোকেট সুলতানা কামালের সভাপতিত্বে সেমিনারে পার্বত্য চট্রগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা (সন্তু লারমা) বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন।

অনুষ্ঠানে প্যানেল আলোচক ছিলেন- এএলআরডি’র চেয়ারপার্সন ও নিজেরা করি’র খুশী কবির, অর্থনীতির অধ্যাপক ও গবেষক ড.স্বপন আদনান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ও সাবেক তথ্য কমিশনার অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম, বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট রানা দাশগুপ্ত ও সাপ্তাহিক সম্পাদক গোলাম মোর্তোজা। সূচনা বক্তব্য রাখেন এএলআরডির নির্বাহি পরিচালক শামসুল হুদা।

এতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. রোবায়েত ফেরদৌস ‘জঙ্গিবাদ, বহুত্ববাদ ও ভুমি সন্ত্রাস’ এবং বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সঞ্জীব দ্রং ‘আদিবাসীদের ভুমি অধিকার ও মানবাধিকার’ শীর্ষক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেন, বিএনপি জাতীয় ঐক্যের কথা বলছে। কিন্তু সম্প্রতি ঘোষিত বিএনপির নির্বাহি কমিটির দিকে তাকালে দেখা যায়, সেখানে ১৯৭১ সালে মানবতা বিরোধী অপরাধের দায়ে সাজাপ্রাপ্ত ও মৃত্যুদন্ড কার্যকর হওয়া অপরাধীর পরিবারের সদস্যদের স্থান দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ‘ডা. জাফরুল্লাহরা চেষ্টা করছেন বিএনপিকে জামায়াতিদের কবল থেকে ফিরিয়ে আনার জন্য। প্রকৃত অর্থে বিএনপির সাথে জামায়াতের নিবিড় যে ঐক্য তা আদর্শিক জায়গা থেকে এসেছে।’

তিনি বলেন, জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাস ও অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়তে হলে জনগণের মধ্যে ঐক্য তৈরী করতে হবে। বর্তমান সরকার সেজন্য কাজ করে যাচ্ছে। এজন্য তিনি দেশপ্রেমিক ও মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সকল শক্তির সহযোগিতা কামনা করেন।

তিনি বলেন, গুলশান ও শোলাকিয়ায় জঙ্গী হামলার পর এটাকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাস বলার চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু এ বিষয়ে অত্যন্ত সতর্ক থাকতে হবে।

দেশে ভূমি সন্ত্রাস একটি বাস্তব অবস্থা উল্লেখ করে মেনন বলেন, আমাদের দেশে ভূমির যে বিন্যাস ও অবস্থা, তাতে দেখা যায় পার্বত্য চট্রগ্রামসহ দেশের সর্বত্র প্রান্তিক জনগোষ্ঠি সবলের দ্বারা ভূমি সন্ত্রাসের শিকার হচ্ছে।

তিনি বলেন, পার্বত্য শান্তি চুক্তি হওয়ার পর সেখান সেসব সমস্যা বিরাজমান ছিল তা সমাধানের চেষ্টা চলছে। ওই এলাকায় ভূমি নিয়ে যে বিরোধ ছিল তা এখনও বিরাজমান রয়েছে। এসব সমস্যা নিষ্পত্তির জন্য ভুমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশন সংশোধন করা হয়েছে জানিয়ে রাশেদ খান মেনন আরও বলেন, তা দ্রুত কার্যকরের জন্য শিগগিরই অধ্যাদেশ আকারে জারি করা হবে।

সভাপতির বক্তৃতায় এডভোকেট সুলতানা কামাল বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে নির্মমভাবে হত্যাকান্ডের পর জাতির অনেক কিছু বদলিয়ে দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে একসাথে লড়ে তা রুখে দিতে হবে। তাই আমাদের শপথ হোক সন্ত্রাস, জঙ্গী ও মৌলবাদীদের বাংলার মাটিতে তাদের কোন স্থান নেই।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য চট্রগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা (সন্তু লারমা) বলেন, দেশের সমাজ ব্যবস্থা যদি গণমুখি ও অসাম্প্রদায়িক হতো তাহলে সেখানে জঙ্গীবাদ মাথা চাড়া দিয়ে উঠতে পারতো না। রাষ্ট্রের সর্বত্র অসাম্প্রদায়িক চেতনা নিশ্চিত করতে হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. রোবায়েত ফেরদৌস ‘জঙ্গিবাদ, বহুত্ববাদ ও ভুমি সন্ত্রাস’ শীর্ষক মূল প্রবন্ধে জঙ্গীবাদ রোধে করণীয় সম্পর্কে বেশকিছু সুপারিশ তুলে ধরেন।

সুপারিশে তিনি বলেন, দেশে একটি সাংস্কৃতিক গণজাগরণ তৈরী করতে হবে। জেলা-উপজেলায় শিল্পকলা একাডেমী ও শিশু একাডেমীর কার্যক্রমকে জোরদার করতে হবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড জোরদার করেতে হবে। এজন্য কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়মিত ছাত্র সংসদ নির্বাচন সম্পন্ন করা দরকার।

প্রবন্ধে ড. রোবায়েত ফেরদৌস আরও বলেন, শিক্ষার্থীরা কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে অনিয়মিত হলে অবশ্যই অভিভাবকদের সাথে যোগাযোগ করতে হবে। অভিভাবকদের উচিত হবে সন্তানকে সময় দেয়া, একই সাথে সমবয়সী বন্ধু-বান্ধবদের উচিত হবে তাদের সহপাঠীদের খোঁজ-খবর নেয়া।

বাংলাদেশ‘ আদিবাসী ফোরামের’ সাদারণ সম্পাদক সঞ্জীব দ্রং ‘আদিবাসীদের ভুমি অধিকার ও মানবাধিকার’ শীর্ষক প্রবন্ধে বলেন, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠিদের অধিকারের স্বীকৃতি দিয়ে তাদের আত্ম-নিয়ন্ত্রণ অধিকারসহ ভূমি ও সম্পদের উপর অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। সমতলের আদিবাসীদের জন্য স্বতন্ত্র ভুমি কমিশন গঠন করতে হবে। একই সাথে পার্বত্য চট্রগ্রাম ভুমি কমিশন কার্যকর করতে হবে।