ব্রেকিং নিউজ

রাত ৯:২৬ ঢাকা, সোমবার  ২৪শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

বিএনপির আন্দোলনে সবাইকে শরিক হওয়ার আহ্বান

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে শুরু হওয়া  গণতন্ত্র ও ভোটের অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে  সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে শরিক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মঙ্গলবার মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে দলটির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের সমাধিতে ফুলেল শ্রদ্ধাঞ্জলি জানানো শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের মূল চেতনা ছিলো গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ও মানুষের মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করা। কিন্তু জাতির দুর্ভাগ্য স্বাধীনতার ৪৪ বছর পর আবারো দেশের গণতন্ত্র ও মৌলিক অধিকার হরণ করা হয়েছে। দেশে এখন কোনো গণতন্ত্র নেই। গণতন্ত্র এখন পুরোপুরি কারারুদ্ধ।

মির্জা ফখরুল বলেন, জোর করে ক্ষমতা দখল করা আওয়ামী লীগের জন্য বাংলাদেশের ভবিষ্যত, স্বাধীনতা, স্বার্বভৌমত্ব, গণতন্ত্র বিপন্ন হয়ে পড়েছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে জবাবে তিনি বলেন, বিএনপি দেশের জনগণের অধিকার ফিরিয়ে আনতে আন্দোলন করছে। অথচ আওয়ামী লীগ বার বার বাংলাদেশের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করতে একের পর এক ইস্যু সৃষ্টি করছে। বিভ্রান্তি সৃষ্টির মাধ্যমে জনগণের দৃষ্টি সরিয়ে নিতে ষড়যন্ত্র করছে।

তিনি বলেন, দেশে এখন আলাদা  কোনো ইস্যু নেই। বাংলাদেশে এখন একটাই রাজনৈতিক ইস্যু। আর তা হচ্ছে অবিলম্বে নির্দলীয় সরকারের অধীনে ক্ষমতা হস্তান্তর করে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করা।

এসময় তিনি গুম, খুন অপহরণের মাধ্যমে দেশে এখন একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েম করার চক্রান্ত শুরু হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন।

এর আগে দলের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের সমাধিতে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন, ফাহেতা পাঠ ও দোয়া করেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। এসময় বিএনপির শীর্ষ নেতৃবৃন্দ ও দলের অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।