Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৩:৫৪ ঢাকা, রবিবার  ১৮ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

বাংলাদেশ ব্যাংক কর্মকর্তা নির্যাতনের ঘটনায় অভিযুক্ত পুলিশের এসআই মাসুদ ক্লোজড

বাংলাদেশ ব্যাংক কর্মকর্তা গোলাম রাব্বীকে নির্যাতনের ঘটনায় মোহম্মদপুর থানার এসআই মাসুদ শিকদারকে ক্লোজড। সোমবার তাকে দায়িত্ব থেকে প্রত্যাহার করে নেয়া হয়। ডিএমপি এই তথ্য গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছে। পুলিশ বলেছে, এসআই মাসুদকে ডিএমপির তেজগাঁও উপ-কমিশনার কার্যালয়ে নেয়া হয়েছে।

শনিবার রাতে রাব্বীকে পুলিশের গাড়িতে তুলে নিয়ে ইয়াবা ব্যবসায়ী-সেবনকারী বানানোর ভয় দেখিয়ে পাঁচ লাখ চাঁদা আদায়ের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে ঐ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে।

ভুক্তভোগী গোলাম রাব্বি জানান, শনিবার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকা হতে কল্যাণপুরে বাসায় ফেরার পথে আসাদ গেটে ডাচবাংলা ব্যাংকের এটিএম বুথে ঢুকে টাকা উত্তোলন করি। তখন রাত আনুমানিক ১০টা। বুথ থেকে বের হয়ে টাকা মানিব্যাগে ঢুকাতেই পাশে দাঁড়িয়ে থাকা পুলিশের লোকজন আমাকে টেনেহিঁচড়ে তাদের গাড়িতে তোলেন। এসময় আমার মোবাইল ফোন ও মানিব্যাগ কেড়ে নেয়া হয়। বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তা পরিচয় পেয়ে পুলিশের এসআই মাসুদ বলেন, ‘তুই বাংলাদেশ ব্যাংকে চাকরি করিস। তোর কাছে অনেক টাকা আছে। ৫ লাখ টাকা দে। নইলে তোকে বেড়িবাঁধে ক্রসফায়ার করে লাশ ফেলে দেয়া হবে।’ এরপর তিনি আমাকে বুট দিয়ে লাথি মারতে থাকেন। পরে টাকা দেয়ার কথায় রাজি হলে রাত ৩ টার দিকে ১০/১২ জন বন্ধু এসে পুলিশের গাড়ি থেকে আমাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।

মোহাম্মদপুর থানার ওসি জালাল উদ্দিন মীর গণমাধ্যমকে বলেন, অভিযুক্ত এসআই মাসুদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত করা হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে বাংলাদেশ ব্যাংকের ওই কর্মকর্তাকে পুলিশের গাড়িতে তুলে নিয়ে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগের সত্যতা মিলেছে। বিষয়টি পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তারা তদন্ত করছেন।