ব্রেকিং নিউজ

সকাল ১০:২৯ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৬ই আগস্ট ২০১৮ ইং

বাংলাদেশ নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশ : বিশ্বব্যাংক

বাংলাদেশ এখন নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশ। বাংলাদেশ সময় বুধবার মধ্য রাতে এ স্বীকৃতি দেয় আন্তর্জাতিক আর্থিক সংস্থা বিশ্বব্যাংক। রাতে প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইটেও বাংলাদেশকে নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশ (ইনকাম লেভেল : লোয়ার মিডল ইনকাম) হিসেবে উপস্থাপন করা হয়। বার্ষিক মাথাপিছু আয়ের নিরিখে স্টাটাসের এ পরিবর্তন আনা হয়েছে।
বিশ্বব্যাংকের লিড ইকোনমিস্ট (ঢাকা) ড. জাহিদ হোসেন জানান, আমরা যে অর্থনৈতিকভাবে এগিয়ে যাচ্ছি, আমাদের যে মাথাপিছু আয় বেড়েছে- তার আনুষ্ঠানিক ও প্রাতিষ্ঠানিক স্বীকৃতি এটি। চারটি ক্যাটাগরিতে বিশ্বব্যাংক দেশগুলোকে শ্রেণীবিন্যাস করে থাকে। এগুলো হল- নিম্ন আয়ের দেশ, নিম্ন-মধ্যম আয়ের দেশ, উচ্চ-মধ্যম আয়ের দেশ এবং উচ্চ আয়ের দেশ। বিশ্বব্যাংকের শ্রেণীবিভাজন অনুযায়ী বছরে মাথাপিছু আয় ১০৪৫ ডলার পর্যন্ত হলে সে দেশটিকে নিম্ন আয়ের দেশ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় সম্প্রতি তা অতিক্রম করে ১০৮০ (২০১৪) ডলারে উন্নীত হয়েছে। এরই নীরিখে বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশের শ্রেণীতে পরিবর্তন আনে। এটি কেবলমাত্র অগ্রযাত্রার শুরু।
বিশ্বব্যাংকের ওয়েবসাইটে বুধবার দেখানো হয়েছে, বাংলাদেশের বর্তমান মাথাপিছু আয় ১০৯৬ ডলার। জিডিপির পরিমাণ ১৭৩ দশমিক ৮ বিলিয়ন ডলার। জনসংখ্যা দেখানো হয়েছে ১৫ কোটি ৮৫ লাখ। এছাড়া স্কুলে যাওয়া, কার্বন নিঃসরণ কমানো, শিশুমৃত্যুর হার, দারিদ্রতার হার, জীবনযাত্রার ব্যয় ইত্যাদি ক্ষেত্রেও বাংলাদেশের অগ্রগতির রেখাচিত্র তুলে ধরা হয়েছে ওয়েবসাইটে।