ব্রেকিং নিউজ

রাত ৪:৫৯ ঢাকা, শুক্রবার  ২১শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

বাংলাদেশে প্রতিবন্ধীদের অধিকার নিশ্চিত করা হচ্ছে : জাতিসংঘে সায়মা

অটিজিম আক্রান্তসহ প্রতিবন্ধীদের অধিকার নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ সরকারের ১৪টি মন্ত্রণালয় কাজ করছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের অটিজমবিষয়ক জাতীয় পরামর্শক কমিটির চেয়ারপারসন সায়মা ওয়াজেদ। মন্ত্রণালয়গুলো শিক্ষা, কর্মসংস্থান ও অন্যান্য আর্থ-সামাজিক কর্মকাণ্ডের সুযোগ তৈরির মাধ্যমে প্রতিবন্ধীদের অধিকার নিশ্চিত করছে বলেও জানান তিনি।স্থানীয় সময় শুক্রবার বিকালে নিউ ইয়র্কের জাতিসংঘের সদর দফতরে ‘অটিজম মোকাবিলা: এসডিজির আলোকে বিশ্ব সম্প্রদায়ের কৌশল’ শীর্ষক সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে সায়মা ওয়াজেদ একথা জানান ।

বাংলাদেশ, কাতার, দক্ষিণ কোরিয়া, ভারত এবং অটিজম স্পিকসের যৌথ আয়োজনে এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

এতে বক্তব্য দেন জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি-মুনের স্ত্রী বান সুন তায়েক, জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের প্রেসিডেন্টের পক্ষে কাজাখস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি খায়রাত আবদরা খমানব, জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন, ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি সৈয়দ আকবর উদ্দিন, কাতারের স্থায়ী প্রতিনিধি আলিয়া বিনতে আহমেদ আল থানি, দক্ষিণ কোরিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি ওহ জুন, অটিজম স্পিকসের কো-ফাউন্ডার সুজানে রাইট প্রমুখ।

saima1

সেমিনারে সায়মা ওয়াজেদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে প্রতিবন্ধিতা মোকাবিলায় ব্যাপক পদক্ষেপ বাস্তবায়ন হচ্ছে।প্রধানমন্ত্রীকন্যা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ তত্ত্বাবধানে অটিজম নিয়ে নানা পদক্ষেপ বাস্তবায়ন হচ্ছে। এর মধ্যে প্রতিটি বিদ্যালয়ে অন্তত দুজন করে অটিস্টিক বা প্রতিবন্ধী শিশুকে পড়তে দেওয়ার সুযোগ রাখা বাধ্যতামূলক করার বিষয়টি উল্লেখযোগ্য।

তিনি আরো বলেন, আমাদের দেশের বর্তমান সরকারের প্রত্যেকটি উন্নয়নসংশ্লিষ্ট বিভাগ অটিজম বা প্রতিবন্ধিতার ব্যাপারগুলো দেখাশোনা করছে। তারা তাদের কাজ করছে কিনা সে যোগাযোগও রাখা হচ্ছে।

অটিজমসহ অন্য উন্নয়ন প্রতিবন্ধিতা মোকাবিলায় সরকারের এ পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় (২০১৬-২০২১) আরো বেশ কিছু উদ্যোগ নেয়া হবে বলেও জানান সায়মা।

saima2

সায়মা ওয়াজেদ বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে উন্নয়ন প্রতিবন্ধিতা মোকাবিলায় ইতিবাচক পরিবর্তন এসেছে। তবে সামনে আরো অনেক চ্যালেঞ্জ রয়েছে। সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বা এমডিজি অর্জনে এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সবাইকে নিজ নিজ জায়গা থেকে আরো আন্তরিকভাবে এগিয়ে আসতে হবে।প্রতিবন্ধীদের জন্য জাতীয়ভাবে কাজ করার পাশাপাশি আঞ্চলিকভাবে দক্ষিণ এশিয়ায় এবং আন্তর্জাতিক পরিসরেও বাংলাদেশ সচেতনতা সৃষ্টিতে কাজ করছে বলেও জানান অটিজমবিষয়ক জাতীয় পরামর্শক কমিটির চেয়ারপারসন সায়মা ওয়াজেদ।