Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৯:৫৬ ঢাকা, শুক্রবার  ১৬ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত রোলা পাল্টে দিচ্ছে জাপানের পপসংস্কৃতি

শীর্ষ মিডিয়া ২১ অক্টোবর ঃ   জাপানের ফ্যাশন আইকন রোলা জাপানের ভিনদেশি তারকাদের মধ্যে সবচেয়ে এগিয়ে। কেন্দ্রবিন্দুতে গ্যালাক্সির মতো অবস্থান করে পাল্টে দিচ্ছেন জাপানি পপসংস্কৃতির ডিএনএ। টিভি খুললেই দেখা মিলবে ২৪ বছর বয়সী বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এই মডেলের। এমনকি বিভিন্ন অনুষ্ঠানের ফাঁকে বিজ্ঞাপনের দৃশ্যগুলো জুড়েও থাকছেন রোলা। বিল বোর্ডগুলোতে রোলা যেন সোনার খনি। তাঁর বড় বড় চোখ এবং মেয়েলী ভাবগুলো ফুটে উঠছে ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদ ও ভেন্ডিং মেশিনেও।

সম্প্রতি বার্তা সংস্থা এএফপির সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে রোলা বলেন, ‘যখনই মানুষজন আমাকে বলে আরেকটু নরম হয়ে কথা বলো, আমি কখনোই তা নিয়ে উদ্বিগ্ন হই না। আমি কাউকে ছোট করতে চাই না। আমি একজন কৌতূক অভিনেতাও নই। আমি হলাম ঠিক আমার মতোন। আমি মনটা খুলে দিতে চাই। আর চাই অন্যরাও তা–ই করুক।’
ব্রিটিশ বংশোদ্ভূত জাপানি গায়িকা ও অভিনেত্রী বেকি হলেন আরেকজন সুপার মডেল, যাঁর জাপানে প্রচুর ভক্ত রয়েছে। অপরদিকে ফরাসি বংশোদ্ভূত সংবাদপাঠক ক্রিসটেল তাকিগাওয়া টোকিও অলিম্পিক ২০২০ আয়োজনে শহরের দূত হিসেবে মনোনীত হয়েছেন।
তাঁদের এই উত্থান জাপানিদের আচরণেরও পরিবর্তন করেছে। বহির্বিশ্ব থেকে দূরে সরিয়ে রাখার উনবিংশ শতাব্দীর মূলধারাটির পরিবর্তনও নজরে আসছে।
জাপানি একটি টিভি চ্যানেলে বলা হয়েছে, অল্পবয়স্ক জাপানি নারীরা এখন রোলার মতো হতে চায়। অনেকেই এখন তাঁর মতো পোশাক ও ব্যাগ ব্যবহার করে থাকেন। বিষয়টি কেমন যেন কার্টুনের মতো।
রোলার বাবা জরিপ-আল-আসা রাজধানী ঢাকার অদূরের বিক্রমপুরের সন্তান। তাঁর মা রুশ বংশোদ্ভূত জাপানি। রোলার জন্ম জাপানে। তবে তাঁর শিশুকাল কেটেছে বাংলাদেশে।