Press "Enter" to skip to content

বাংলাদেশি ছাড়া কাউকে বাংলাদেশে ঢুকতে দেব না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বিএসএফের পুশইনে বাংলাদেশিদের আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, আমরা কোনোভাবেই বাংলাদেশি ছাড়া কাউকে বাংলাদেশের মাটিতে ঢুকতে দেব না। বাংলাদেশি নাগরিক না হলে কেউই সীমান্ত দিয়ে প্রবেশ করতে পারবে না। অবৈধভাবে পুশইনের যেকোনো চেষ্টা বিজিবি প্রতিরোধ করতে সক্ষম। তারা সেই প্রস্তুতি নিয়েই সীমান্ত পাহারা দিচ্ছে।

সম্প্রতি বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে পুশইনের প্রচেষ্টা বেড়ে যাওয়ার বিষয়ে সাংবাদিকরা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করলে এসব কথা বলেন তিনি। মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আপনারা হয়তো দেখেছেন, কিছু কিছু বাঙালি, এরা বাংলাদেশি কি না আমি সঠিকভাবে এখনও নিশ্চিত নই। তাদের ভেতরে ঢোকানোর চেষ্টা করেছেন। আমাদের বিজিবি কয়েক জায়গা থেকে এদের ঢুকতে দেয়নি। এদের সংখ্যা হাজার হাজার নয়, কয়েকশ।

তিনি আরো বলেন, আমাদের দেশ থেকে বিভিন্ন সময়ে পাসপোর্ট নিয়ে অনেকেই গিয়ে থাকেন। যখন ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যায় তখন তাদের পাঠিয়ে দেওয়া হয়। এরকম যদি কিছু হয়ে থাকে, তাহলে আমরা অবশ্যই রিসিভ করব। আমরা কোনোভাবেই বাংলাদেশি ছাড়া কাউকে বাংলাদেশের মাটিতে ঢুকতে দেব না। আমাদের দেশের মানুষ অনেক বছর ধরে ভারতে যাওয়া-আসা করে। কেউ শ্রমজীবী, কেউ পেশাদার হিসেবে যায়। আবার কেউ চিকিৎসা বা পড়াশোনা করার জন্য যায়। তাদের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়ে থাকলে হয়তো তাদের এই জটিলতা দেখা দিয়েছে।

বাংলাদেশের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের মধ্যে এটা উস্কানিমূলক কি না-এমন প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, ‘না, কোনো উস্কানিমূলক নয়। যদি হাজার হাজার বা শতশত হতো, তাহলে একটা আলোচনার ব্যবস্থা হতো। যারাই গিয়েছিল তারাই পালিয়ে আসছেন কি না কিংবা অবৈধভাবে গিয়েছেন বা অবৈধভাবে ফেরত আসছেন কি না আমাদের জানতে হবে।

শেয়ার অপশন: