ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:৩৭ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২০শে এপ্রিল ২০১৮ ইং

বিশ্বব্যাংক

বাংলাদেশকে ৭৪০ মিলিয়ন ডলার ঋণ দেবে বিশ্বব্যাংক

মৎস্য অধিদফতরের আওতায় ‘কোস্টাল ফিসারিজ’ ভিত্তিক একটি প্রকল্পে ২৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং প্রাণিসম্পদ খাতে ‘ডিআরএমপি’ প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশকে ৫০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ঋণ দেবে বিশ্বব্যাংক।

বিশ্বব্যাংক, ডিএফআইডি এবং সিআইএটি-এর যৌথ উদ্যোগে আজ বুধবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শুরু হওয়া দু’দিনব্যাপী ‘বাংলাদেশ ক্লাইমেট স্মার্ট এগ্রিকালচার (সিএসএ) কান্ট্রি প্রোফাইল এ্যান্ড কিক-অফ বাংলাদেশ স্মার্ট ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যান (সিএসআইপি)’-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে একথা বলা হয়।

প্রধান অতিথি হিসাবে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব রইছউল আলম মন্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মাহমুদা বেগম, বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর (বাংলাদেশ, ভুটান ও নেপাল) কিমিও ফ্যান বিশ্বব্যাংকেরর‘এগ্রিকালচার গ্লোবাল প্র্যাকটিস’-এর পরিচালক মার্টিন ভ্যান নিউকোপ।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী বলেন, বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি কমাতে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ খাতসহ দেশের সর্বস্তরে পরিবেশবান্ধব উন্নয়ন-প্রকল্পে বাংলাদেশ সরকার নিরলস কাজ করে যাচ্ছে।

নারায়ন চন্দ্র চন্দ দেশের উন্নয়নে বিশ্বব্যাংকের পরিবেশবান্ধব বিনিয়োগকে স্বাগত জানিয়ে সর্বাত্মক সয়তার আশ্বাস দেন।
অনুষ্ঠানে দ’ুটি উপস্থাপনা পেশ করেন যথাক্রমে ‘সিএসআইপি’-এর প্রতিনিধি গুডফ্রয় গ্রসজেনএবং বিশ্বব্যাংক-এর প্রতিনিধি টোবিয়াস বেডকার।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বৈশ্বিক জলবায়ু ঝুঁকিসূচক অনুযায়ি বিশ্বের শীর্ষ ১০টি জলবায়ু-ঝুকিপূর্ণ দেশের মধ্যে বাংলাদেশ একটি বলে উল্লেখ করে বলেন, স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা ও প্রকল্প গ্রহণের মাধ্যমে জলবায়ুর পরিবর্তনরোধ এবং পরিবর্তনের মধ্যেও ব্যাপক উন্নয়ন-পরিকল্পনা বাস্তবায়নে কার্যকর উদ্যোগ নিতে হবে।