রুহুল কবির রিজভী
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, ফাইল ফটো

বাংলাদেশকে নিয়ে হুমকির প্রতিবাদ বিএনপির

ভারতের ক্ষমতাসীন দলের নেতা সুব্রামানিয়াম স্বামী বাংলাদেশ দখল এবং এ দেশে দিল্লির শাসন প্রতিষ্ঠার যে হুমকি দিয়েছেন, তার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বিএনপি।

দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বর্তমান সরকার দেশের জনগণের প্রতিনিধিত্ব করে না, তারা অন্য কারও প্রতিভূ হিসাবে দেশ শাসন করছে মাত্র।

রোববার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে তিনি এ নিন্দা জানান।

রিজভী বলেন, শেখ হাসিনার প্রতি ভারতের সমর্থন রয়েছে বলায় সুব্রামানিয়াম স্বামীর প্রতি কৃতজ্ঞ হয়ে সরকার বাংলাদেশে ভারতের হামলা চালানো ও বাংলাদেশকে দখল করে নেয়ার মতো বাংলাদেশের স্বাধীন অস্তিত্ব এবং সার্বভৌমত্ববিরোধী মারাত্মক হুমকিকে আমলে নেয়নি।

‘এটি আমলে না নিয়ে দেশের চেয়ে নিজেদের স্বার্থকে অধিক গুরুত্ব দেয়ায় পুনরায় প্রমাণিত হয়েছে- বর্তমান সরকার দেশের জনগণের প্রতিনিধিত্ব করে না, তারা অন্য কারও প্রতিভূ হিসাবে দেশ শাসন করে মাত্র।’

তিনি বলেন, ত্রিপুরার রাজধানী আগরতলায় এক সংবাদ সম্মেলনে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির প্রভাবশালী নেতা ও রাজ্যসভার সদস্য সুব্রামানিয়াম স্বামী বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনের অভিযোগ তুলে এটি বন্ধ না হলে বাংলাদেশ দখল ও এ দেশে দিল্লির শাসন প্রতিষ্ঠার হুমকি দিয়েছেন।

‘বাংলাদেশের স্বাধীনসত্তা ও সার্বভৌমত্বের বিরুদ্ধে তার প্রকাশ্য হুমকি অপ্রত্যাশিত, অকূটনৈতিক ও আগ্রাসী। এ খবর বাংলাদেশের গণমাধ্যমে প্রচারিত হওয়ার পরও গত কয়েক দিনের মধ্যে ধর্মনিরপেক্ষতার ধ্বজাধারী বাংলাদেশ সরকার এ ব্যাপারে কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি।’

বিএনপির এ নেতা বলেন, এটি শুধু ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের নতজানু পররাষ্ট্রনীতির পরিচায়ক নয়- সার্বভৌম বাংলাদেশের মর্যাদা ও স্বাতন্ত্র রক্ষায় সরকারের সীমাহীন ব্যর্থতার নগ্ন প্রকাশ বলে দেশবাসী মনে করে।

রিজভী বলেন, এ সরকারের কাছে ক্ষমতাই সব কিছু। দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব কিংবা মর্যাদার কোনো গুরুত্ব নেই।

বিএনপি সব নাগরিকের সংবিধান স্বীকৃত সমান অধিকারে বিশ্বাসী ও ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবার নিজ নিজ ধর্মপালনের অধিকারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। একটি গণতান্ত্রিক দল হিসাবে সুব্রামানিয়াম স্বামীর অভিযোগের যথার্থতা থাকলে সে বিষয়ে কার্যকর প্রতিকারের ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর হরমান ঢালী, সাংগঠনিক সহসম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ।