Press "Enter" to skip to content

বাংলাকে গুজরাট বানাতে চায় : মমতা

কলকাতার হেয়ার স্কুলে স্থাপিত হল পণ্ডিত ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মূর্তি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মঙ্গলবার মূর্তিটির উদ্বোধন করেন। এরপর আরেকটি মূর্তি নিয়ে তিনি রওনা হন বিদ্যাসাগর কলেজের দিকে। সেখানেই বিজেপির মিছিল থেকে মূর্তি ভাঙা হয়েছিল। কলেজে মূর্তি পুনঃস্থাপন করেন মমতা। বলেন, বাংলাকে (পশ্চিমবঙ্গ) গুজরাট বানানোর ষড়যন্ত্র চলছে। এনডিটিভি।

লোকসভা নির্বাচনের শেষ দফা ভোটের আগে কলকাতায় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ নেতৃত্বে রোড শো হয়। সেই রোড শোকে ঘিরে পরিস্থিতি উত্তাল হয়ে ওঠে। ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাসাগর কলেজে অবাধে ভাঙচুর চালানো হয়। বিদ্যাসাগরের মূর্তিও ভেঙে ফেলা হয়।

এই ঘটনায় কে বা কারা জড়িত তা নিয়ে রাজনৈতিক বিতর্ক শুরু হয়। মূর্তি ভাঙার পরেই মুখ্যমন্ত্রী জানান সেটি পুনঃস্থাপিত করা হবে। এরপর হেয়ার স্কুলে বিদ্যাসাগরের একটি মূর্তি স্থাপিত হল। এরপর আরও চারটি মূর্তি স্থাপিত হবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। অন্যটি স্থাপিত হয়েছে বিদ্যাসাগর কলেজে।

হেয়ার স্কুলের অনুষ্ঠান থেকে মমতা বলেন, ‘মূর্তি ভাঙা মানে শুধু মূর্তি ভাঙা নয়। এটা আমাদের কৃষ্টিতে আঘাত করা। আজ যিনি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তাঁর সভা ঘিরেই পরিস্থিতি উত্তাল হয়। ক্ষমতায় আসতে আমাদের লেনিন মার্ক্সের মূর্তি ভাঙতে হয়নি।’

তিনি বলেন, ‘আমরা মানুষদের ভালবাসি, দাঙ্গাবাজদের নয়। বাংলা গুজরাট নয়, করতেও দেব না। এর জন্য আমাদের জেলে যেতে হলে যাব। বাংলার সংবাদ মাধ্যম মানুষের পাশে থাকে না। বিজেপি সমস্ত সংবাদ মাধ্যম কিনে নিয়েছি। বাংলাকে গুজরাট বানানোর চেষ্টা হচ্ছে।’

শেয়ার অপশন:
Don`t copy text!