Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ২:০৫ ঢাকা, বুধবার  ২১শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

তোফায়েল আহমেদ
বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, ফাইল ফটো

বহুজাতিক কোম্পানীসমূহকে পুঁজিবাজারে আনার আহবান

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ দেশে ব্যবসা করছে এমন বহুজাতিক কোম্পানীসমূহকে পুঁজিবাজারে তালিকাভূক্তির ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘অনেক বহুজাতিক কোম্পানী আমাদের দেশে ব্যবসা করছে।তারা মুনাফা করছে কিন্তু এদেশে একেবারে বিনিয়োগ করবে না,এটা হতে পারে না।আমি বিএসইসির চেয়ারম্যানকে বলবো, এসব কোম্পানীকে বাজারে আনার ব্যবস্থা করুন।’

বৃহস্পতিবার রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউটে বাংলাদেশ ক্যাপিটাল মার্কেট এক্সপো-২০১৬ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

অনলাইন নিউজপোর্টাল অর্থসূচক তিন দিনব্যাপী এই মেলার আয়োজন করেছে।

অর্থসূচকের সম্পাদক জিয়াউর রহমানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিএসইসির চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেন,ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্যবস্থাপনা পরিচালক কে এম সাজেদুর রহমান,চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) মো. সাইফুর রহমান মজুমদার,ডিএসই ব্রোকার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি আহমেদ রশীদ লালী,মার্চেন্ট ব্যাংকার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি ছায়েদুর রহমান প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন,এখন পুঁজিবাজার স্থিতিশীল।ভাল অবস্থায় আছে।তবে ২০১০ সালের ঘটনাটি ছিল অনাকাঙ্খিত।সে সময় অনেক বিনিয়োগকারী অর্থ হারিয়েছেন।ওইসময় মার্চেন্ট ব্যাংক ও বিনিয়োগকারীসহ সবাইকে আরো বেশি সতর্ক থাকার দরকার ছিল বলে তিনি মন্তব্য করেন।

বাজারের প্রতি বিনিয়োগকারীকে আস্থা অনেক বেড়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন,এখন বাজার স্থিতিশীল।লেনদেন বেশি হচ্ছে। প্রতিদিন লেনদেন বাড়ছে।বিনিয়োগকারীদের আস্থা ক্রমান্বয়ে বাড়ছে।তবে বাজার সম্পর্কে বিনিয়োগকারীকে আরো সচেতন হতে হবে।কারণ,অল্প মুনাফা ভালো।আর বেশি মুনাফা ধ্বংস করে।

তিনি বলেন,বাংলাদেশ ব্যাংকের সহযোগিতায় পুঁজিবাজারে ব্যাংকগুলোর অতিরিক্ত বিনিয়োগ (এক্সপোজার) সমস্যার সমাধান হয়েছে।আগামীতে এ স্থিতিশীল অবস্থা যেকোনো মুল্যে ধরে রাখতে সরকারের সব ধরনের প্রচেস্টা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

তোফায়েল আহমেদ পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসির উদ্দেশ্য বলেন,বাজারের এই অবস্থা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়,সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।পুঁজিবাজারকে স্থিতিশীল রেখেই অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিতে হবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী পুঁজিবাজার সম্পর্কে সচেতনতা তৈরি ও ব্র্যান্ডিংয়ের জন্য মেলায় আয়োজন করায় অর্থসূচককে ধন্যবাদ জানান।

মেলা উপলক্ষে ব্রোকার হাউজ, মার্চেন্ট ব্যাংক, অ্যাসেস ম্যানেজমেন্ট কোম্পানী, ক্রেডিট রেটিং এজেন্সী, তালিকাভূক্তি কোম্পানীসহ পুঁজিবাজারের বিভিন্ন স্টেকহোল্ডার এক ছাদের নিচে সমবেত হয়েছে।মেলা প্রতিদিন সকাল ১০ থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত উম্মুক্ত থাকবে।