ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ২:৫০ ঢাকা, বুধবার  ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ফখরুল ইসলাম আলমগীর
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ফাইল ফটো

‘বসে থাকলে চলবেনা’

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এই অবৈধ ফ্যাসিস্ট সরকার বিএনপি নেতাকর্মী দিয়ে কারাগারে ভরে ফেলেছে। কথা বললেই জেলে নিয়ে নির্যাতন করা হয়। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা মামলা দেয়া হচ্ছে। এই অবস্থায় বসে থাকলে চলবেনা। সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধি করে এবং ঐক্যবদ্ধ হয়ে একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনে সরকারকে বাধ্য করতে হবে। যাতে এই সরকারের হাত থেকে নিস্তার পেয়ে জনগণ দম ফেলতে পারে।

বৃহস্পতিবার বাদ জোহর রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নীচ তলায় এক দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে তিনি এ কথা বলেন। ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের প্রাক্তন কমিশনার, ঢাকা মহানগর বিএনপির প্রাক্তন যুগ্ম আহ্বায়ক ও চকবাজার থানা বিএনপির আহ্বায়ক প্রয়াত হাজী আজিজ উল্লাহর বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনায় এই দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে ঢাকা মহানগর বিএনপি।

‘নিরেপেক্ষ নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা জামানত হারাবে, সেজন্য সরকার বিএনপি চেয়ারপার্সনে সংলাপের আহ্বানে সাড়া দিচ্ছে না’ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

হাজী আজিজ উল্লাহর ভুমিকা স্মরণ করে তিনি বলেন, তিনি বিএনপির নিবেদিতপ্রাণ নেতা ছিলেন। এলাকার জনপ্রিয়তার কারনে তিনি বারবার কমিশনার হয়েছেন। অথচ তিনি যখন মারা গেলেন তখনও ১১টি মামলা তার বিরুদ্ধে ছিলো। তাকে অনুসরণ করে স্থানীয় নেতাকর্মীরা সামনের দিকে এগিয়ে যাবে বলে বিশ্বাস করি।

বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও ঢাকা মহানগর বিএনপি’র আহবায়ক মির্জা আব্বাসের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির অর্থনৈতিক বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সালাম, নির্বাহী কমিটির সদস্য নাজিম উদ্দিন মাস্টারসহ ঢাকা মহানগর বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।