ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:৩২ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ভুয়া ডাক্তার সাইফুল ইসলাম

বরিশালের হাসপাতাল থেকে ‘ভুয়া ডাক্তার’ আটক

বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে মাদ্রাসার সনদধারী সাইফুল ইসলাম নামের এক ভুয়া ডাক্তার/চিকিৎসককে আটক করেছে পুলিশ।

আজ দুপুর ১২টার দিকে তাকে আটক করা হয়।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, সাইফুল পুলিশের কাছে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন, তিনি গত এক বছর ধরে নিজেকে কখনো ইন্টার্ন ডাক্তার/চিকিৎসক, কখনো মেডিকেল অফিসার হিসেবে দাবি করে গলায় একটি স্টেথোস্কোপ ঝুলিয়ে বিভিন্ন ওয়ার্ড ও ইউনিটে রাউন্ড দিয়ে আসছিলেন। এ সময়ে তিনি রোগী ও তাদের স্বজনদের কাছ থেকে প্রতারণামূলকভাবে টাকা নিতেন। এমনকি নিজেকে চিকিৎসক পরিচয় দিয়ে বাকেরগঞ্জের বিত্তবান এক পরিবারের মেয়েকে বিয়েও করেছেন।

সম্প্রতি সাইফুল হাসপাতালের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী আবদুল রশিদের ছেলেকে চাকরি দিয়ে দেয়ার কথা বলে ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন।

বিষয়টি বুঝতে পেরে আবদুল রশিদ ক্যানসার বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. তরিৎ কুমার সমাদ্দারকে জানালে তিনি সাইফুলকে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। আর তখনই সাইফুলের প্রতারণার বিষয়টি ধরা পড়ে যায়। আটককৃত সাইফুল ইসলাম বরিশালের বানারীপাড়ার কুমারপাড়া গ্রামের মো. নূরুজ্জামানের ছেলে। সাইফুল মূলত বরিশাল নগরীর সাগরদী ইসলামি আলিম মাদ্রাসা থেকে দাখিল ও আলিম পাশ করেছেন।

এ ব্যাপারে বরিশাল কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশ হাসপাতাল থেকে ভুয়া ডাক্তার/চিকিৎসক পরিচয়দানকারী সাইফুল ইসলামকে থানায় নিয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।