ব্রেকিং নিউজ

ভোর ৫:১৮ ঢাকা, রবিবার  ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

এরশাদ
জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ

‘বন্যাদুর্গতদের জন্য সরকারী ত্রাণসামগ্রী অপর্যাপ্ত’- এরশাদ

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি এইচএম এরশাদ বলেছেন, বন্যাদুর্গতদের মাঝে সরকার যে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করছে, তা পর্যাপ্ত নয়। আমরা মানুষের স্বার্থে বন্যা দুর্গতদের পাশে দাঁড়িয়ে সরকারকে সহযোগিতা করতে চাই।

বৃহস্পতিবার গাইবান্ধার ফুলছড়ির কঞ্চিপাড়া ইউনিয়নের বালাসিঘাটে ত্রাণ বিতরণ পূর্ব এক সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় এরশাদ ফুলছড়ি ও সদর উপজেলার বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শন করেন এবং দুর্গতদের মাঝে ত্রাণবিতরণ করেন।

এরশাদ জানান, ক্ষমতায় থাকাকালীন তিনি দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের দুর্দশা লাঘবের চেষ্টা করেছেন। সে সময় কাউকে না খেয়ে মরতে হয়নি। আজ সরকার বন্যার্তদের জন্য ত্রাণসামগ্রী দিচ্ছে ঠিকই, কিন্তু তা পর্যাপ্ত নয়। তাদের জন্য আরও ত্রাণসামগ্রী প্রয়োজন।

তিনি আরও বলেন, জাতীয় পার্টি ২৫ বছর ক্ষমতার বাইরে। এই দীর্ঘ সময় দলের নেতাকর্মীদের ওপর অত্যাচার-নির্যাতন করা হয়েছে। কিন্তু, তাতে দল ধ্বংস হয়ে যায়নি। বরং জাতীয় পার্টি জনগণের সমর্থন নিয়ে আরও শক্তিশালী হয়েছে। আগামীতে জাতীয় পার্টির ক্ষমতায় আসার সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

সাবেক এই রাষ্ট্রপতি জনগণকে তাদের পাশে থেকে দলকে শক্তিশালী করতে সহযোগিতার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, দেশের মানুষ সন্ত্রাসে বিশ্বাস করে না। তারা শান্তিতে থাকতে চায়। সন্ত্রাসী এবং জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। জঙ্গিদের খোঁজ পেলে প্রশাসন ও আইনশৃংখলা বাহিনীকে খবর দিতে হবে।

জাতীয় পার্টির ফুলছড়ি উপজেলার কঞ্চিপাড়া ইউনিয়ন সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম সরকারের সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে দলের কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি আব্দুর রশিদ সরকার, যুগ্ম মহাসচিব এহিয়া চৌধুরী, সংসদ সদস্য জিয়াউল হক মৃধা, সাঘাটা উপজেলা চেয়ারম্যান এএইচএম গোলাম শহীদ রঞ্জু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

পরে এরশাদ সদর উপজেলার কামারজানি ইউনিয়নে বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শন এবং ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেন। এ সময় কামারজানি মার্চেন্ট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সমাবেশে অংশ নেন তিনি।