আইনমন্ত্রী আনিসুল হক
ঢাকায় নিযুক্ত জাপানী রাষ্ট্রদূত - আইনমন্ত্রী আনিসুল হক

ফিলিপাইনবাসীকে ধোকা দিতে আরসিবিসি’র মামলা

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ফিলিপাইনের রিজল কমার্শিয়াল ব্যাংকিং কর্পোরেশন (আরসিবিসি) নিজ দেশের মানুষকে ধোকা দেওয়ার জন্যই বাংলাদেশ ব্যাংকের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেছে।

এ মানহানির মামলার ক্ষেত্রে আরসিবিসি কর্মকর্তারা সত্যিকার অর্থে কোন আইনি আচরণ মেনেছেন বলেও তিনি মনে করেন না। আইনমন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে ঢাকায় নিযুক্ত জাপানী রাষ্ট্রদূত হিরোইয়াসু ইজুমির সাথে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

আনিসুল হক বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ হ্যাকিংয়ের ঘটনার জন্য আচরণগত (কন্ডাক্ট) কারণেই ফিলিপাইনের সরকার এবং সিনেট আরসিবিসিকে দায়ি করেছিল। এ জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক আইনীপন্থায় রিজল কমার্শিয়াল ব্যাংকিং কর্পোরেশনের বিরুদ্ধে কোন মামলা করলে মানহানিকর কিছু হবে না বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

জাপানী রাষ্ট্রদূতেরর সাথে কী বিষয়ে আলোচনা হয়েছে- এ প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস-এর বিচারপতি নির্বাচনে জাপান প্রার্থী হতে চায়। সেই নির্বাচনে তারা বাংলাদেশের সমর্থন চান। আমি তাকে বলেছি, যেহেতু বাংলাদেশ থেকে এই নির্বাচনে কোন প্রার্থী দেওয়া হবে না,তাই এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সাথে আলোচনা করে জাপানের প্রতি সমর্থনের বিষয়টি তাদেরকে জানাবো।’

হলি আর্টিজানের মামলার ঘটনার আপডেট সম্পর্কিত অপর এক প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, এই মামলাটি এখন বিচারাধীন। এখন পর্যন্ত ১৭ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে। এ মামলার বিচার অনেক দূর এগিয়েছে।