Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৮:৪৩ ঢাকা, রবিবার  ১৮ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

ফাঁসির রায় নিয়ে পাক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সমালোচনার জবাবে ঢাকাস্থ হাইকমিশনারকে তলব

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে জামায়াতের আমির মতিউর রহমান নিজামীকে ফাঁসির আদেশ দেওয়ার কড়া সমালোচনা করেন পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চৌধুরী নিসার আলী খান। এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদ জানাতে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মিজানুর রহমান ঢাকায় নিযুক্ত পাকিস্তানের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার আহমেদ হুসেইন জায়োকে  তলব করেন।
অতিরিক্ত সচিব মিজানুর রহমান তাকে ডেকে এনে সরকারের অবস্থান তুলে ধরে জানিয়ে দেন, বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে পাকিস্তানের নাক গলানো উচিত নয়। আন্তর্জাতিক মান বজায় রেখে একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার সংঘটিত হচ্ছে। বাংলাদেশ আশা করে, আগামী দিনে পাকিস্তান এ ধরনের আচরণের পুনরাবৃত্তি করবে না। এ মর্মে একটি চিঠিও আহমেদ হুসেইন জায়োর কাছে হস্তান্তর করা হয়।

উল্লেখ্য,নিজামীর রায়ের পর পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চৌধুরী নিসার আলি খান বলেছিলেন, বাংলাদেশের সরকার জামায়াতে ইসলামীর নেতার বিরুদ্ধে আইনি প্রক্রিয়ার অপপ্রয়োগ ঘটিয়েছে, আইনকে ব্যবহার করেছে রাজনৈতিক হাতিয়ার হিসেবে। বাংলাদেশে যা ঘটছে, তা যদিও দেশটির অভ্যন্তরীণ বিষয়, তবু ১৯৭১ ও তার পরবর্তী ঘটনাবলি-সংক্রান্ত বিষয়গুলো থেকে পাকিস্তান দূরে সরে থাকতে পারে না। সেই দুঃখজনক ঘটনাবলির প্রায় ৪৫ বছর পরেও বাংলাদেশ সরকার অতীতেই বাস করছে এবং সময়ের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ‘‘ক্ষমা করো এবং ভুলে যাও” নীতিটি সম্পূর্ণভাবে অগ্রাহ্য করছে বলে মনে হচ্ছে। বাংলাদেশ সরকার কেন অতীতের কবর খুঁড়ে পুরোনো ক্ষতগুলো উন্মোচনের জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে, তা বোধগম্য নয়।