Press "Enter" to skip to content

প্রিয়াংকার অপসারণ চেয়েছে পাকিস্তান

ইউনিসেফের শিশু তহবিলে শুভেচ্ছাদূত প্রিয়াংকা চোপড়ার অপসারণ চেয়ে অনলাইনে আবেদন করেছে পাকিস্তান।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে পাক-ভারত উত্তেজনা নিয়ে তার ভূমিকা নিরপেক্ষ ছিল না।  সে ভারতীয় বিমান বাহিনীকে সমর্থন জানিয়েছে তাই এখন আর ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হওয়ার যোগ্যতা তার নেই।

কাশ্মীরের পুলওয়ামাতে আত্মঘাতী হামলার পর ভারতীয় বিমানবাহিনী পাকিস্তানের অভ্যন্তরে ঢুকে বিমান হামলা চালায়। এ সময় ভারতের পক্ষ থেকে দাবি করা হয় জইশ-ই-মোহাম্মদের ক্যাম্প ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে। এমন ঘটনার পর অনেক বলিউড তারকারা তাদের পাইলটদের সাহসীকতার প্রশংসা করে।

প্রিয়াংকা চোপড়ার বাবা ড. অশোক চোপড়া ও মা ড. মধু চোপড়া দুজনেই ভারতের সেনাবাহিনীর ডাক্তার। সম্প্রতি ভারত সার্জিক্যাল স্টাইক ২.০ পরিচালনা করলে প্রিয়াংকা দেশটির বিমান বাহিনীকে সমর্থন জানিয়ে টুইট করেন ‘জয় হিন্দ’।

প্রিয়াংকা চোপড়া ভারতীয় বিমান বাহিনীকে সমর্থন করায় খুশি হতে পারেনি পাকিস্তান। এ নিয়ে পাকিস্তান থেকে প্রিয়াংকার বিরুদ্ধে অনলাইনে আবেদন আসে। সেখানে তারা অভিনেত্রী প্রিয়াংকা চোপড়াকে ইউনিসেফ থেকে অপসারণ চায়।

ওই আবেদনে বলা হয়, দুই পরমাণ শক্তিধর দেশের মধ্যে যুদ্ধ হলে শুধু ধ্বংসই হবে এবং মানুষ মারা যাবে। ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে প্রিয়াংকা চোপড়া নিরপেক্ষ ও শান্তি কামনা করতে পারে। কিন্তু তিনি ভারতীয় বিমানবাহিনীকে সমর্থন করতে পারে না, যেখানে পাকিস্তান আক্রান্ত। সে কোনোভাবেই এমন পদবী ব্যবহার করতে পারে না।

প্রসঙ্গত, ইউনিসেফের শিশু তহবিলে শুভেচ্ছাদূত হিসেবে কাজ করছেন বলিউডের অভিনেত্রী প্রিয়াংকা চোপড়া।

Mission News Theme by Compete Themes.