Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৯:২৪ ঢাকা, বুধবার  ২১শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

‘প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজব ছড়ালে ব্যবস্থা’: শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ পাবলিক পরীক্ষার সময় প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজব ছড়ানোরোধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি আজ সোমবার সচিবালয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আসন্ন এসএসসি, দাখিল ও সমমান পরীক্ষা ২০১৬ সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে আয়োজিত জাতীয় মনিটরিং কমিটি সভায় সভাপতিত্বকালে এ নির্দেশ দেন। নাহিদ বলেন, একটি স্বার্থান্বেষী মহল সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতে পাবলিক পরীক্ষার সময় প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজব ছড়ায়। এ ধরণের দুষ্ট চক্র নিজেদের বানানো প্রশ্নপত্র ফেসবুকের মাধ্যমে ছড়িয়ে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের বিভ্রান্ত করে, তাদের মনোবল নষ্ট করে দিয়ে পরীক্ষা প্রস্তুতিতে ব্যাঘাত ঘটায়। এসব অশুভ চক্রের পরিচালিত পরীক্ষার পরিবেশ ব্যাঘাতকারী প্রচারণায় বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য শিক্ষামন্ত্রী পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের প্রতি আহবান জানান। মন্ত্রী একইসাথে কোচিং সেন্টারসহ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের চেষ্টা চালাতে পারে এমন সব চক্রকে কঠোর নজরদারিতে রাখার জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের নির্দেশনা প্রদান করেন। সভায় শিক্ষা সচিবের দায়িত্ব পালনরত অতিরিক্ত সচিব এ এস মাহমুদ, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও যুগ্মসচিববৃন্দ, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ফাহিমা খাতুন, বিভিন্ন শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যানগণ এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতিনিধিবর্গ অংশগ্রহণ করেন।
সভায় জানানো হয়, বিভিন্ন শিক্ষাবোর্ডের অধীনে ১ ফেব্রুয়ারি শুরু এসএসসি, দাখিল ও সমমানের পরীক্ষায় ৩২০৩ টি কেন্দ্রে ১৬,৬৯,৩১৭ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবে। উল্লেখ্য, প্রত্যেকটি বিষয়ে পরীক্ষায় পরীক্ষার দিন প্রথমে বহু নির্বাচনী ও পরে সৃজনশীল বা রচনামূলক (তত্ত্বীয়) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে এবং উভয় পরীক্ষার মাঝে ১০ মিনিট সময়ের ব্যবধান থাকবে। এর আগে, সৃজনশীল পরীক্ষার পর বহুনির্বাচনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হতো।