ব্রেকিং নিউজ

রাত ১:৫৯ ঢাকা, বুধবার  ২০শে জুন ২০১৮ ইং

প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ ভিত্তিহীন, আদালত খারিজ করায় বিষয়টি মীমাংসিত

চলতি বছর মেডিক্যাল ও ডেন্টাল কলেজসমূহে এমবিসিএস/বিডিএস ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগকে গুজব ও ভিত্তিহীন হিসেবে দাবি করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক ব্যাখ্যায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলেছে, শতভাগ সততা ও স্বচ্ছতার সাথে নিশ্চিদ্র নিরাপত্তা ও গোপনীয়তার মাধ্যমে এমবিসিএস/বিডিএস ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র প্রণয়ন ও পরবর্তীতে সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। অথচ এ প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজব নিয়ে কিছু স্বার্থন্বেষী চক্র প্রচারণার মাধ্যমে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে। প্রশ্নপত্র ফাঁসের যে সকল অভিযোগ বিভিন্ন মহল থেকে এসেছে তা মোটেও সঠিক নয়। গত ১৫, ১৭ ও ২২ সেপ্টেম্বর প্রশ্নপত্র ফাঁসের জালিয়াতি ও প্রতারণার সাথে জড়িত সন্দেহে র‌্যাব যাদের গ্রেফতার করেছে তাদের কারোর কাছ থেকে ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত কোন প্রশ্নপত্র পাওয়া যায়নি।

স্বাস্থ্য অধিদফতর বলেছে, ভর্তি পরীক্ষা শেষ হওয়ার পূর্ব মুহূর্ত পর্যন্ত কোন মহল থেকে প্রশ্ন ফাঁসের কোন অভিযোগ করা হয়নি। এমনকি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শনের সময় যখন বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিনিধি ও ভর্তিচ্ছুকদের অভিভাবকদের সাথে কথা বলেন, তখনো কেউ প্রশ্নপত্র ফাঁসের বিষয়ে মন্ত্রীর কাছে কোন অভিযোগ করেননি। সারাদেশে ২৩টি ভর্তি পরীক্ষা কেন্দ্রে পরিদর্শকদের কাছেও কেউ অভিযোগ তোলেননি। পরীক্ষা থেকে প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ উত্থাপন ও ভর্তি পরীক্ষা বাতিল চেয়ে দাখিলকৃত রিট আবেদনটি হাইকোর্ট এবং পরবর্তীতে আপিল বিভাগ খারিজ করেছে। তাই বিষয়টি এখন মীমাংসিত।