Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৬:২৮ ঢাকা, সোমবার  ১৯শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া দেশে কারও নিরাপত্তা নেই’

দেশে  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া কারও নিরাপত্তা নেই বলে মন্তব্য করেছেন ২০ দলীয় জোটের শরিক জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান। তিনি বলেছেন, সমগ্র জাতি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। সরকার বিরোধী দলকে ধ্বংস করতে গিয়ে নিজেই ধ্বংসের দিকে চলে যাচ্ছে। প্রকৃতির নিয়মইে এই ফ্যাসীবাদী সরকারের পতন অনিবার্য। আজ সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবে কমরেড নুরুল হক চৌধুরী মেহেদী  স্মরণে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। শফিউল আলম প্রধান বলেন, সরকার বিরোধী রাজনীতির কণ্ঠরোধ করতে গিয়ে বিদেশীদের কাছে নিজের দেশকে জঙ্গিবাদী রাষ্ট্র হিসাবে প্রমাণ করার আত্মঘাতী খেলা খেলতে গিয়ে নিজেই বিপদে ঠেলে দিয়েছে জাতিকে। সরকারের অপরাজনীতির কারণে জাতীয় সংহতি বিনষ্ট করেছে। ধর্মে-ধর্মে সংঘাত সৃষ্টি করে দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার চক্রান্ত করছে। সরকারের এই চক্রান্তের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। সভাপতির বক্তব্যে ন্যাপ সভাপতি জেবেল রহমান গাণি বলেন, দেশ এখন দুঃসময় পার করছে। সংসদে কার্যত কোন বিরোধী দল নেই। বিদেশী নাগরিক, ব্লগাররা হত্যা হচ্ছে। দেশের মানুষের কোন নিরাপত্তা নেই। এই মুহূর্তে গণতান্ত্রিক আন্দোলনে কমরেড মেহেদীর মতো নেতা প্রয়োজন। তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের ব্যর্থতা দেশকে এক অস্থিতিশীল পরিস্থিতির দিকে ঠেলে দিয়েছে। দেশে কোন অঘটন ঘটলে তার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত করে দোষী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় না এনে সরকার ঘটনাগুলোকে বিরোধী দলের ওপর চাপিয়ে দিয়ে অপরাজনীতি করছে। সরকার বিরোদী দল দমনে অপরাজনীতি না করে যদি এ দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতো তাহলে দেশে হত্যা ও সন্ত্রাসের কোন ঘটনাই ঘটতো না। আলোচনা সভায় এনডিপি চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা, ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, কল্যাণ পার্টি ভাইস চেয়ারম্যান সাহিদুর রহমান তামান্না, জাতীয় পার্টি যুগ্ম মহাসচিব এএসএম শামিম  প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।