Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৯:৫০ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২০শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

চেক প্রজাতন্ত্রের প্রেসিডেন্ট মিলোস জেমান

প্রধানমন্ত্রীকে সরাতে গুলির পরামর্শে তোলপাড়

চেক প্রজাতন্ত্রের ঠোঁটকাটা প্রেসিডেন্ট প্রধানমন্ত্রী বহুস্লাভ সোবোতকাকে একেবারেই পছন্দ করেন না।

গতমাসে রেডিওতে এক সাক্ষাৎকারে তিনি খোলাখুলি বলেন তিনি প্রধানমন্ত্রীকে বরখাস্ত করতে পারলে অত্যন্ত খুশি হতেন।

কিন্তু সোমবার এক জনসভায় প্রধানমন্ত্রীকে সরানোর নিয়ে তিনি যা বলেছেন, তা নিয়ে সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে।

জনসভায় প্রেসিডেন্টকে জিজ্ঞেস করা হয় প্রধানমন্ত্রীকে তিনি কীভাবে সরাবেন।

উত্তরে তিনি বলেন, “একটি পদ্ধতি গণতান্ত্রিক – নির্বাচন। অন্যটি অগণতান্ত্রিক – কালাশনিকভ।”

চেক প্রেসিডেন্ট কিছুটা রসিকতার সুরে এ কথাও বললেও, সোশ্যাল মিডিয়াতে বিশেষ করে রাজনীতিকরা সমালোচনায় মুখর হয়েছেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মিলান চোভানেচ টুইটারে লিখেছেন, “একজন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি সম্পর্কে এ ধরণের রুচিহীন রসিকতা আগুনে তেল ঢালার মত।”

পাভেল ব্যাভোদা নামে একজন এমপি তার টুইটার এ্যাকাউন্টে র‍্যামবোর বেশে অভিনেতা সিলভেস্টার স্ট্যালোনের একটি ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, “মি জেমান কি নিজে কালাশনিকভ চালাবেন, নাকি এরকম কাউকে ভাড়া করবেন।”

সমালোচনার মুখে প্রেসিডেন্টের একজন মুখপাত্র বলেছেন, অনর্থক বাড়াবাড়ি করা হচ্ছে। মুখপাত্র বলেন, প্রেসিডেন্ট বলতে চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রীকে সরানোর একমাত্র উপায় অবাধ ও মুক্ত একটি নির্বাচন। বিবিসি