প্যারিসে আক্রমণকারী মিশরীয়
ল্যুভের প্রাঙ্গণে সশস্ত্র নিরাপত্তা প্রহরা

প্যারিসে আক্রমণকারী মিশরীয়

মাটিতে গুলিবিদ্ধ আক্রমণকারী

ফরাসী কর্তৃপক্ষ বলছে, প্যারিসের ল্যুভ জাদুঘরে যে লোকটি চাপাতি নিয়ে আক্রমণ চালানোর চেষ্টা করেছিল – সে একজন মিশরীয়।

শুক্রবার সকালে লোকটি ‘আল্লাহু আকবর’ বলে চিৎকার দিয়ে জাদুঘরে প্রহরারত একদল সেনার ওপর আক্রমণ চালালে সৈন্যরা পাল্টা গুলি করে এবং তাতে লোকটি গুরুতর আহত হয়। তার চাপাতির আঘাতে একজন সেনাও সামান্য আহত হয়।

সবশেষ খবরে জানা যাচ্ছে, হাসপাতালে চিকিৎসার পর এখন সে জীবনাশংকামুক্ত, তবে তাকে এখনো জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় নি।

একজন কৌসুলির কথায়, ২৯ বছর বয়স্ক এই ব্যক্তি গত মাসে দুবাই থেকে টুরিস্ট ভিসা প্যারিসে আসে বলে তারা ধারণা করছেন।

তবে তার পরিচয় এখনো পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়া যায় নি বলে তিনি জানান। কিন্তু মিশরীয় নিরাপত্তা সূত্রগুলো বলছে, তার পরিচয় তারা জানতে পেরেছে, এবং সে প্যারিসের যে এলাকায় থাকতো সেখানে পুলিশ গত শুক্রবার তল্লাশীও চালিয়েছে।

সেখানকার একটি দোকান থেকে সে দুটি মাংস কাটার চাপাতি কেনে – যেখানে বন্দুকও বিক্রি হতো। তার পিঠে যে ব্যাগ ছিল তাতে রং-এর কৌটো ছিল তবে কোন বিস্ফোরক ছিল না।

তার সাথে কোন পরিচয়পত্র ছিল না, তবে তার মোবাইল ফোনের তথ্য থেকে তার প্যারিসে আসার তারিখ ২৬শে জানুয়ারি বলে জানা গেছে।

মিশর এ আক্রমণের নিন্দা করলেও আক্রমণকারীর পরিচয় সম্পর্কে এখনো কিছু বলে নি।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ওলঁদ বলেছেন, সৈন্যরা একটি সন্ত্রাসী হামলা ঠেকিয়ে দিয়েছে।

ফ্রান্সে প্যারিস ও অন্যত্র সম্প্রতি বেশ কয়েকটি সন্ত্রাসী হামলার পর এখানকার দর্শনীয় স্থানগুলোতে পর্যটকের সংখ্যা কিছুটা কমে গেছে। বিবিসি

সর্বশেষ সংশোধিত: