ব্রেকিং নিউজ

রাত ২:৫৬ ঢাকা, বুধবার  ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

সেনাবাহিনী মোতায়েনের মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি : সিইসি

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ বলেছেন, আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি।
আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে করণীয় ঠিক করতে আজ আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বিভিন্ন বাহিনীর সঙ্গে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।
রাজধানীর ইস্কাটনে বিয়াম অডিটরিয়ামে সিইসি কাজী রকিবউদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
সিইসি বলেন, ‘নির্বাচনকে কেন্দ্র করে পৌর এলাকাগুলোর পরিস্থিতি উদ্বেগজনক নয়। আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে বৈঠকে বিভিন্ন পৌর এলাকার রিটার্নিং কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। তারা জানিয়েছেন, সেনাবাহিনী রাখার মতো কোন পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। র‌্যাব-বিজিবি ও পুলিশ সদস্য মোতায়েন থাকায় পরিস্থিতি ভালো রয়েছে।’
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, উৎসবমুখর পরিবেশে প্রচার-প্রচারণা চলছে। কোন কোন জায়গায় দু’একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটলেও সেদিকে নজরদারি রয়েছে।
বৈঠকে নির্বাচন কমিশনাররা, ইসি সচিবালয়ের সচিব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, র‌্যাব, বিজিবি, আনসার-ভিডিপি, কোস্ট গার্ডসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
কমিশন সূত্র জানায়, পৌর নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র ভেদে ১৯ থেকে ২০ জন ফোর্স মোতায়েন করা হবে। এ নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র রয়েছে ৩ হাজার ৫৮৫টি। কেন্দ্রে পুলিশ, আনসার-ভিডিপি, এপিবিএন মোতায়েন থাকবে। এছাড়া ভোটার এলাকায় ২৮ ডিসেম্বর থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত র‌্যাব, বিজিবি, পুলিশ, কোস্ট গার্ড- স্ট্রাইকিং ফোর্স ও মোবাইল টিম হিসেবে মোতায়েন থাকবে। এ নির্বাচনে সবমিলিয়ে ৭০ হাজারের বেশি ফোর্স থাকছে।
আগামী ৩০ ডিসেম্বর দেশের ২৩৪ পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এতে মেয়র পদে ৯২৩ জন ও কাউন্সিলর পদে ১১ হাজার ১২২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ নির্বাচনে প্রায় ৭২ লাখ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাবেন।