Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৭:১৯ ঢাকা, শনিবার  ১৭ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

পৌর নির্বাচনে এমপিদের প্রচারণার সুযোগ: আ’লীগ চায়, বিএনপি চায় না

এমপিদের প্রচারণার সুযোগ চেয়েছে আ’লীগ

আসন্ন পৌর নির্বাচনে এমপিদের প্রচারণার সুযোগ চেয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রতিনিধিদলের সদস্যরা। এছাড়া মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার সময় বাড়ানোর দাবিও জানিয়েছে দলটি।
রোববার দুপুর ১২টা ৪০মিনিটে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) গিয়ে এ দাবি জানান তারা।
এর আগে দুপুর সোয়া ১২টার দিকে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফের নেতৃত্বে ছয় সদস্যের প্রতিনিধিদল ইসিতে যান। দলে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দীপু মনি, জাহাঙ্গীর কবির নানক ও দফতর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপও ছিলেন।
প্রায় আধা ঘণ্টা তারা ইসির সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠক শেষে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ সাংবাদিকদের বলেন, প্রথমবারের মতো দলীয়ভাবে মেয়রপদে নির্বাচন হচ্ছে। এমপিরা এ নির্বাচনের প্রচারণায় অংশ নিতে পারবেন না। কিন্তু আমাদের তো বলতে হবে এই প্রার্থী আমাদের। তারা আমাদের দলকে রিপ্রেজেন্ট করে। আমার দলের আদর্শ এটা। সুতরাং কেন আমাদের প্রচারণা চালাতে দেবেন না ?
তিনি আরো বলেন, আগে নির্দলীয় ছিল। সেখানে এমপিরা প্রচারণা চালাতে যেত না। দলীয়ভাবে নির্বাচন হওয়ায় এমপিদের প্রচারণার সুযোগ দিতে হবে। প্রত্যেক এমপির এটি গণতান্ত্রিক অধিকার। এ সুযোগ আপনাদের দিতে হবে।
হানিফ বলেন, মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার সময় বাড়ানোর দাবি করেছি। এ ব্যাপারে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে পরে সিদ্ধান্ত দেয়া হবে বলে সিইসি আমাদের জানিয়েছেন।
প্রসঙ্গত, আগামী ৩০ ডিসেম্বর দেশের ২৩৬ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ হবে। মনোনয়ন দাখিলের শেষ সময় ৩ ডিসেম্বর। বাছাই ৫ ও ৬ ডিসেম্বর এবং প্রত্যাহারের শেষ সময় ১৩ ডিসেম্বর।

এমপিদের প্রচারণা চায় না বিএনপি

পৌরসভা নির্বাচন ১৫ দিন পেছানোসহ এই নির্বাচনে এমপিদের প্রচারণায় সুযোগ না রাখার দাবি জানিয়েছে বিএনপি।
রোববার বেলা ৩টার দিকে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) সঙ্গে বৈঠক শেষে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ড. ওসমান ফারুক সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

সিইসির সঙ্গে বৈঠকে ড. এম ওসমান ফারুক ৫ সদস্য প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন। প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা হলেন- খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, এ এস এম আবদুল হালিম, ক্যাম্পেন (অব.) সুজাউদ্দিন ও বিএনপির যুব বিষয়ক সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।
ড. ওসমান ফারুকে বলেন, আমরা পৌর নির্বাচন ১৫ দিন পেছানোসহ গ্রেফতার দলীয় নেতা-কর্মীদের মুক্তির দাবি জানিয়েছি। কারণ তাদের মুক্তি না দিলে নির্বাচনে লেবেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি হবে না।
ওসমান ফারুক আরও বলেন, জবাবে ইসি বলেছেন নির্বাচন পেছানোর সুযোগ নেই। তবে নির্বাচনে এমপিদের প্রচারণার বিষয়টি আলাপ-আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।
এর আগে দুপুর পৌনে ২টার দিকে ড. ওসমান ফারুকের নেতৃত্বে বিএনপির ৫ সদস্যের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সিইসি কাজী রকিব উদ্দীন আহমেদের বৈঠক শুরু হয়।
এর আগে শনিবার দুপুরেও ইসিতে গিয়েছিল বিএনপির একটি প্রতিনিধি দল।