ব্রেকিং নিউজ

ভোর ৫:০০ ঢাকা, শুক্রবার  ২১শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

পৌরসভা নির্বাচনে টিআইএন বাধ্যতামূলক

আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে অংশ নিতে প্রার্থীদের হলফনামাসহ বিভিন্ন কাগজপত্রের সঙ্গে কর সনাক্তকরণ নম্বর (টিআইএন) সনদের অনুলিপি জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ ২৪ নভেম্বর মঙ্গলবার পৌর ভোটের তফসিল ঘোষণার পর এরইমধ্যে প্রার্থীদের যোগ্যতা-অযোগ্যতা, মনোনয়নপত্র দাখিল ও গ্রহণ সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় নির্দেশনা ২৩৬ জন রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশনের সহকারী সচিব রাজীব আহসান।
ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, আগামী ৩০ ডিসেম্বর মেয়াদোত্তীর্ণ ২৩৬টি পৌরসভায় ভোট হবে। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ৩ ডিসেম্বর। যাচাই-বাছাই ৫ ও ৬ ডিসেম্বর। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ১৩ ডিসেম্বর। সহকারী সচিব রাজীব আহসান জানান, মেয়র ও কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্রের সঙ্গে সংযুক্তি হিসেবে প্রার্থীর সর্বোচ্চ শিক্ষাগত যোগ্যতার সত্যায়িত সনদসহ হলফনামা দিতে হবে।
‘এ ছাড়া নির্বাচনী ব্যয়ের জন্য সম্ভাব্য অর্থের উৎস ও ব্যয় বিবরণী, ১২ ডিজিটের টিআইন সনদের কপি, সম্পদের বিবরণী ও সর্বশেষ আয়কর রিটার্নের রশিদের কপি দিতে হবে। জামানত জমার কপি এবং প্রার্থীর দলীয় প্রত্যয়নপত্র ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে সমর্থন তালিকা দিতে হবে।’
ইসির এ কর্মকর্তা জানান, বিদ্যমান আইন অনুযায়ী মেয়ররা স্বপদে থেকেও ভোট করতে পারবেন। এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের ভোটে দাঁড়াতে বাধা নেই। সরকারি চাকরি থেকে অবসর নিয়েও প্রার্থী হওয়া যাবে। বিডি নিউজ।